শহরের মুন্সিপাড়া গোরস্তানে বৃহস্পতিবার ভোরে একটি কবর খুঁড়ে লাশের আঙ্গুল, চোখসহ কাফনের কাপড় চুরির চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। এতে ৩ জনকে পুলিশ আটক করেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা শহরের টাঙ্গন ব্রিজ এলাকায় অভিযুক্ত রিপনের বাসায় হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করলে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। এলাকাবাসী জানায়, শহরের হঠাৎপাড়া মহল্লার বাসিন্দা বারেক মিয়া (১০৫) নামে এক বৃদ্ধ গত শনিবার বার্ধক্যজনিত কারণে মারা যায়। তাকে স্থানীয় মুন্সিপাড়া গোরস্তানে দাফন করা হয়। পরিবারের লোকজন ওই বৃদ্ধের লাশ কয়েকদিন পাহাড়া দেয়। বৃহস্পতিবার ভোরে প্রতিবেশী ফজল আলীর ছেলে রিপন পরিকল্পিতভাবে কবর খুঁড়ে লাশের আঙ্গুল, কলিজা, চোখ, কাফনের কাপড়, মাথার চুল চুরি করে নিয়ে যায়। সকালে মৃতের পরিবারের লোকজন কবরটি খোঁড়া এবং কাফনের কাপড়বিহীন লাশের বুক ও আঙ্গুল কাটা দেখতে পেয়ে তারা সেগুলো খুঁজতে শুরু করে। এলাকাবাসীর জিঙাসাবাদে দীর্ঘদিন ধরে মাহাতির ( কালা জাদু) সঙ্গে জড়িত এসব কাজ এর আগেও রিপন নামে এক যুবক করেছিল জানতে পারে এবং রিপনকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে তাদের ওপর চড়াও হয়। এতে উত্তেজিত জনতা দুপুরে অভিযুক্ত রিপনের বাসায় হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। আগুন ছড়িয়ে পড়লে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে এবং অভিযুক্ত রিপন তার মা লিলি বেগম ও নানি আমেনা বেগমকে পুলিশ আটক করলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। জামালপুরে বস্তাভর্তি কঙ্কাল উদ্ধার নিজস্ব সংবাদদাতা জামালপুর থেকে জানান, সদর উপজেলার নরুন্দি রেলওয়ে স্টেশন থেকে পুলিশ বৃহস্পতিবার ভোরে বস্তাভর্তি মানুষের দেহের কঙ্কালসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে। জানা গেছে, বস্তাভর্তি মানুষের কঙ্কালসহ গ্রেফতার মোঃ নাজমুল নরুন্দি ইউনিয়নের ব্রহ্মোত্তর গ্রামের মৃত হেলাল উদ্দিনের ছেলে এবং মোঃ জাহাঙ্গীর ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর উপজেলার মহিলাকান্দা গ্রামের নছর উদ্দিনের ছেলে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা বস্তায় মানুষের মাথার দুটি খুলিসহ বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের হাড়গোড় পাওয়া গেছে। নরুন্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র সূত্রে জানা গেছে, যাত্রীবাহী ট্রেনে মানুষের দেহের কঙ্কাল পাচারের আগাম তথ্যের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার ভোরে তদন্ত কেন্দ্রের একদল পুলিশ সাদা পোশাকে নরুন্দি রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় তিন যুবককে বস্তা নিয়ে ঘোরাঘুরি করতে দেখে পুলিশের সন্দেহ হয়। তারা ওই যুবকদের প্রতি নজর রাখতে থাকে। একপর্যায়ে পুলিশ তাদেরকে ঘেরাও করে জিজ্ঞাসাবাদের সময় একজন যুবক দৌড়ে পালিয়ে যায়। ওই যুবকের পরিচয় জানা যায়নি। মোঃ নাজমুল ও মোঃ জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করে বস্তা তল্লাশির সময় মানুষের দেহের কঙ্কাল পাওয়া যায়। পরে তাদের নরুন্দি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশ বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা বিভিন্ন কবরস্থান থেকে মানুষের দেহের কঙ্কাল চুরি করে থাকে বলে স্বীকার করেছে। এসব কঙ্কাল দেশের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজসহ ভারতেও পাচার করা হয় বলে তারা জানায়।