149484_557775844252861_1983175852_n-300x188

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
ঝিনাইদহ শহরের কাঞ্চননগর পাড়ায় দুই সন্তানের জননী এক প্রবাসীর স্ত্রী প্রেমিকের হাত ধরে অজানার উদ্দেশে পাড়ি জমিয়েছে। প্রেমিকের সঙ্গে যাওয়ার সময় বিদেশ থেকে স্বামীর পাঠানো নগদ ৮ লাখ টাকা, ৫ লাখ টাকার স্বর্ণালঙ্কার ও ২ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে স্ত্রী। এ নিয়ে ওই এলাকায় বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে।
ঝিনাইদহ সদর থানায় করা এক জিডি থেকে জানা গেছে কাঞ্চননগর পাড়া আব্দুল মান্নানের পুত্র প্রবাসী রবিউল ইসলাম রিপনের (৩৫) সঙ্গে ১৩ বছর আগে শহরের ব্যাপারীপাড়ার বাবলু ইসলামের কন্যা শারমিন আক্তার পুতুলের (৩০) বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের রাতুল নামে ৯ বছরের একটি পুত্র ও তাজিম নামে এক বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। পরিবারের সাথে স্ত্রীর বনাবনি না হওয়ায় গত ২০ ফেব্রয়ারী শহরের উপ-শহর পাড়ায় একটি বাসা ভাড়া করে দেন স্বামী রবিউল ইসলাম রিপন। রিপন প্রবাসে থাকার সুযোগে শহরের আরাপপুরের বাসিন্দা শৈলকুপা উপজেলার বড়দাহ গ্রামের টুটুলের সঙ্গে পুতুলের পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
রবিউল ইসলাম রিপন জানান, গত ২২ মার্চ তিনি দেশে ফিরে স্ত্রী ও সন্তানদের কোন খোঁজ পাননি। ভাড়া বাসায় গিয়ে দেখেন তালা লাগানো। তার ধারণা, টুটুলের হাত ধরে তার স্ত্রী পুতুল অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছে। পালানোর সময় বিদেশ থেকে পাঠানো নগদ ৮ লাখ টাকা, ৫ লাখ টাকার স্বর্ণালঙ্কার ও ২ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেন রিপন। গত কয়েকদিন ধরে অনেক খুঁজাখুজি করেও স্ত্রী ও সন্তানের কোন খোঁজ পাননি বলে তিনি জানান। এ ঘটনায় রবিউল ইসলাম রিপন ঝিনাইদহ সদর থানায় গতকাল একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। উল্লেখ্য বিদেশ থাকা ব্যক্তিদের স্ত্রীরা ইদানিং স্বামীর সম্পদ নিয়ে অন্যের সঙ্গে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে। এ বিষয়ে ঝিনাইদহের বিভিন্ন আদালতে একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে। এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে যারা বিয়ে করে স্ত্রীকে দেশে রেখে বছরের পর বছর বিদেশে অবস্থান করেন, তাদের স্ত্রীরা জৈবিক তাড়নায় অন্যের সঙ্গে পরকিয়া কোন কোন ক্ষেত্রে স্বামীর সম্পদ নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছে। বিষয়টি ঝিনাইদহে এখন সামাজিক সমস্যায় পরিণত হয়েছে।