(মুজিবনগর প্রতিনিধি)ঃ মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার কেদারগঞ্জ বাজারে মাংস বিক্রি কসায় পট্টিতে বসার স্থানকে কেন্দ্র করে মাংস কাটা ডাসা ও রড দিয়ে আওয়ামীলীগ কর্মী মানিক কসায়কে কুপিয়েছে বি এন পি নেতা রশিদ কসায়। জানা যায় গতকাল সোমবার সকাল ৭টার দিকে কেদারগঞ্জ বাজারে প্রতিদিনের মতই ন্যায় বল্লভপুর গ্রামের মৃত কুদ্রত শাহর ছেলে মানিক শাহ ও একই গ্রামের নয়ন কসায়ের ছেলে ময়না কসায় দুজন ২টি গরু জাবাই করে বিক্রয় স্থান বসাকে কেন্দ্র করে ২  জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ময়না কসায় তার বড় ভাই উপজেলা বি এন পির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রশিদ ও তার পিতা নয়ন কসায়, চাচা মসলেম কসায় এবং ছোট দুই ভাই সেলিম ও  চকলেট মটরসাইকেল যোগে এসে প্রকাশ্যে দিনের বেলায় জনসাধারনের মাঝে এলোপাতারি ভাবে মাংস কাটা ডাসা দিয়ে মানিক কসায়ের উপরে আক্রমন চালিয়ে মাথা ও পা সহ শরীরের অন্যান্য অংশ কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে পালিয়ে যায়। স্থানীয় জনসাধারণ মানিক কসায়কে জখম অবস্থায় মেহেরপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। এই বিষয়ে মুজিবনগর থানায় ৯/১০ জনকে আসামী করে মানিক কসায়ের ছেলে জিনারুল ইসলাম জিনা মুজিবনগর থানায় ১টি মামলা দায়ের করেন। মুজিবনগর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে নয়ন কসায় সহ তার ছেলে সেলিম ও নয়ন কসায়ের ভাই মসলেম এবং আনন্দবাস গ্রামের আজিজুল হক কাল্টার ছেলে লিয়াকত সহ ৪ এজাহার ভুক্ত আসামীকে গ্রেফতার করেছে বলে মুজিবনগর থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়।