হত্যার দায় স্বীকার আইএসএর ॥ অ্যামনেস্টির উদ্বেগ রাজশাহী ভার্সিটি শিক্ষককে জবাই করে হত্যা

কুষ্টিয়া নিউজ ডেস্ক ॥রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে (৫৮) গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মহানগরীর শালবাগান বটতলা মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিজ বাসার সামনে থেকে মাত্র ১০০ গজ দূরে তাকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বত্তরা। তার গ্রামের বাড়ি রাজশাহীর বাগামারার দরগামাড়িয়ায়। সেখানে তার একটি গানের স্কুল আছে। নিহত রেজাউল করিমের বোনের জামাই মাহাবুব আলম সাংবাদিকদের জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে শালবাগান বটতলা মোড়ে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন রেজাউল। এ সময় মোটরসাইকেলযোগে হেলমেট পরা দুই যুবক পেছন থেকে তার গলাতে কোপ দেয়। এতে তিনি মাটিতে পড়ে যান এবং ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ বিষয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের ওসি শাহাদাত হোসেন জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এর আগে ২০১৪ সালের ১৫ নভেম্বর দুপুরে খুন হন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক একেএম শফিউল ইসলাম। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে ফেরার পথে বিশ্ববিদ্যালয়সংলগ্ন চৌদ্দপাই এলাকায় নিজ বাসার সামনে দুর্বৃত্তদের হামলায় তিনি গুরুতর আহত হন। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর কর্তব্যরত চিকিৎসা কর্মকর্তা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পাঁচ ঘণ্টার মাথায় সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ‘আনসার আল ইসলাম বাংলাদেশ-২’ নামের একটি পেজ খুলে এই হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে স্ট্যাটাস দেয়া হয়। ২০০৪ সালের ২৪ ডিসেম্বর ভোরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসসংলগ্ন বিনোদপুর এলাকায় প্রাতঃভ্রমণের সময় কুপিয়ে হত্যা করা হয় অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউনুসকে। ২০০৬ সালের ১ ফেব্রুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের আবাসিক এলাকা থেকে নিখোঁজ হন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক এস তাহের। দুই দিন পর ক্যাম্পাসের বাসার পাশের ম্যানহোলের ভেতরে তাঁর লাশ পাওয়া যায়। : এদিকে পুলিশ কমিশনারসহ পুলিশ ও অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে আছেন। রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার মোঃ শামসুদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, দেশে ব্লগারদের যেভাবে হত্যা করা হয়েছে, একই কায়দায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় কোনো জঙ্গি সংগঠন জড়িত থাকতে পারে।

Advertisment ad adsense adlogger