গনহিস্টিরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মেহেরপুর সদরের শোলমারী মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রায় ৩০ ছাত্রী অসুস্থ হয়েছে। কিছু ছাত্রীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে এবং বাকিদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।কিছু ছাত্রীদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে এবং বাকিদের মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মুক্তা, ৭ম শ্রেণীর ববিতা, বৃষ্টি, ১০ম শ্রেনীর শারমিন, পাপিয়া, ৯ম শ্রেণীর আলপনা, ঝর্না, শাবনুর, ৮ম শ্রেণীর চামেলী, জয়াকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিদ্যালয় ১দিনের জন্য ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে বলে জানান প্রধান শিক্ষক। রোববার সকালে এ ঘটনা ঘটে। নহিষ্টিরিয়ায় আক্রান্ত বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী ববিতার ভাই আব্বাস আলী জানান, সকালে স্কুলে যাওয়ার পর গনহিস্টিরিয়ার আক্রান্ত এক ছাত্রীকে দেখে ববিতা হটাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়ে। খবর পেয়ে তাকে দ্রুত বাড়িতে নিয়ে এসে স্থানীয় গ্রাম্য চিকিৎসকের কাছে চিকিসা করানো হয়েছে ।বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাহবুবুর রহমান জানান, রোববার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে হঠাৎ করে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মুক্তা অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তাকে উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার সময় তাকে দেখে একে একে প্রায় ৩০ ছাত্রী এ রোগে আক্রান্ত হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তাদের উদ্ধার করে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। কিছু ছাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। তিনি জানান, এ ঘটনার পরপরই উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে জানিয়ে বিদ্যালয় ১ দিনের জন্য ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে।মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক আবু এহসান রাজু জানান, গনহিষ্টিরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। এটি একটি মানসিক রোগ। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কিছুক্ষনের মধ্যে তারা সুস্থ হয়ে যাবে বলে তিনি আশা করেণ।এদিকে, খবর পেয়ে মেহেরপুর জেলা শিক্ষা অফিসার গাজী মোহাম্মদ রফিক, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হোসনে মোবারক বিদ্যালয়ের পরিদশন করেছেন ।