পোশাক নির্বাচন এবং উপস্থাপন

যাদের স্বাস্থ্য একটু ভাল তাদের হাল্কা রঙের পোশাক পরলেও দেখতে চিকন লাগে। এক্ষেত্রে তার গায়ের রঙের বিষয়টিও খেয়াল রাখতে হবে। উজ্জ্বল ও শ্যামলা রঙের ব্যক্তিদের যে কোন হাল্কা রঙেই দেখতে ভাল লাগে। তবে গায়ের রং যাদের একটু চাপা তাদের হাল্কা নীল, হাল্কা সবুজ, ধূসর ইত্যাদি রঙে মানায় নিজের কিছু অনিয়ম আর অভ্যাসের কারণে বেড়ে যেতে পারে ওজন। যদি চান আবার আগের মতো স্লিম হতে। তাদের জন্য বলছি, সঠিক খাদ্যাভ্যাস ও শরীরচর্চার মাধ্যমে বাড়তি ওজন কমানো যায়। তবে এটা সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। তবে এই শীতে ভারি কাপড় পরে বিশেষ কোন অনুষ্ঠানে যখন নিজেকে সবচেয়ে ভালভাবে উপস্থাপন করা প্রয়োজন হয় তখন পোশাক নির্বাচন ও পরায় কিছু কৌশল অবলম্বন করে নিজেকে কিছুটা চিকন দেখানো যায়। সাজসজ্জাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে এই বিষয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে এমন কিছু টিপস নিয়ে লিখেছেনÑ সামিহা বিনতে সুফিয়ান
সঠিক জুতা নির্বাচন করা চিকন দেখানোর জন্য সঠিক হিল বেছে নিন। ভরাট নয় বরং সুচালো হিল ব্যবহার করুন। এই ধরনের জুতা ব্যবহারে বিভ্রম তৈরি করে পা লম্বা দেখায় ও দেখতে চিকন মনে হয়। পোশাক নির্বাচন ঠিক পোশাক নির্বাচন করার পরেও কেবল ভুল তন্তুর জন্য আপনাকে মোটা দেখাতে পারে। হাল্কা তন্তু যেমন- সুতি, ক্রেপ বা অন্য শীতল তন্তু ব্যবহার করুন। ব্রোকার, সার্টিন, পশম ইত্যাদি তন্তু এড়িয়ে চলুন। কারণ এতে দেখতে ফোলা লাগে। বডি শেইপার যদিও সবসময় এটা ব্যবহার করা ঠিক নয়। তবে মাঝেমধ্যে নিজেকে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করার জন্য বডি শেইপার ব্যবহার করতেই পারেন। মাপ মতো পোশাক পরা চিকন দেখানোর জন্য দুটি বিষয় এড়িয়ে চলতে হবে- তা হলো খুব বেশি টাইট ও খুব বেশি ঢিলা পোশাক পরা যাবে না। সবসময় নিজের আকার অনুযায়ী পোশাক পরতে হবে। আপনি যদি লম্বা পোশাক পরেন তাহলে তার সঙ্গে আঁটসাঁট প্যান্ট ও ভাল এক জোড়া জুতা পরুন। আর যদি ঢিলেঢালা প্যান্ট পরেন তাহলে উপরে ঢিলা টপস পরা থেকে বিরত থাকুন। লম্বা জ্যাকেট পাতলা দেখাতে সবসময় ঠিক মাপের কোট বা ব্লেজার ব্যবহার করুন। লম্বা জ্যাকেট বা কার্ডিগান বেছে নিতে পারেন। এতে দেখতে চিকন লাগে। যাদের স্বাস্থ্য একটু ভাল তাদের হাল্কা রঙের পোশাক পরলেও দেখতে চিকন লাগে। এক্ষেত্রে তার গায়ের রঙের বিষয়টিও খেয়াল রাখতে হবে। উজ্জ্বল ও শ্যামলা রঙের ব্যক্তিদের যে কোন হাল্কা রঙেই দেখতে ভাল লাগে। তবে গায়ের রং যাদের একটু চাপা তাদের হাল্কা নীল, হাল্কা সবুজ, ধূসর ইত্যাদি রঙে মানায়। লম্বা ও মোটা মহিলাদের কামিজের ক্ষেত্রে সালোয়ার ও ওড়না একরঙা এবং কামিজ ভিন্ন রঙের হলে দেখতে খানিকটা চিকন লাগে। স্ট্রাইপ নক্সার পোশাক নির্বাচনের ক্ষেত্রে মোটা ব্যক্তিদের আড়াআড়ি এবং লম্বালম্বি স্ট্রাইপের পোশাক বেছে নেয়া ভাল। এতে শরীরের আয়তন কম বোঝা যায়। পুরুষদের শার্ট ও পাঞ্জাবি নির্বাচনের ক্ষেত্রেও লম্বা বা খাড়া স্ট্রাইপ বেছে নেয়া উচিত। আড়াআড়ি স্ট্রাইপের গেঞ্জি বা টি-শার্টে কাঁধ বেশ চওড়া দেখায়। তাই যারা নিজেদের অনেকটা বলিষ্ঠ আকৃতিতে উপস্থাপন করতে পছন্দ করেন তার গেঞ্জির উপরি ভাগে আড়াআড়ি ও নিচের ভাগে লম্বালম্বি স্ট্রাইপ আছে এই ধরনের টি-শার্ট ব্যবহার করতে পারেন। পোশাকের ‘প্রিন্ট’ বাছাইয়ের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবানদের ছোট ‘প্রিন্ট’ প্রাধান্য দেয়া উচিত। কারও যদি বড় প্রিন্টের পোশাক পছন্দ হয় তবে তারা হাল্কা রঙের মধ্যে বড় প্রিন্টের পোশাক বেছে নিতে পারে। তবে এমন পোশাক বাছা ঠিক নয় যেখানে বড় ও ছোট দুই রকমের প্রিন্টই আছে। চিকন দেখানোর জন্য কখনও খুব বেশি চাপা-পোশাক পরা ঠিক নয়। এতে অনেক সময় শরীরের রক্ত চলাচলে বাঁধার সৃষ্টি হয় ও শ্বাস-প্রশ্বাসে অসুবিধাও হতে পারে।

2018-01-16T10:47:53+00:00January 16th, 2018|বিনোদন|
Advertisment ad adsense adlogger