প্রেমে পড়ার যত অদ্ভুত কারণ

ভালোবাসা সব সময়ই রহস্যময়। নতুন এক গবেষণায় বলা হয়, একজন কার প্রেমে পড়বেন তা নির্ভর করে তার দেহের হরমোন ক্ষরণ, ইচ্ছা ও আন্তরিকতার ওপর। এর পরও আরো কিছু রহস্যময় কারণ থাকে, যার প্রভাবে যে কেউ যেকোনো মানুষের প্রেমে পড়ে যেতে পারেন।

১. যদি নিজের মতোই কাউকে খুঁজে পান, তবে ভালো লাগতেই পারে। চেহারায় মিল, পছন্দে মিল, কিংবা স্টাইলে। এমনকি গবেষণায় বলা হয়, বিপরীত লিঙ্গের না হলেও একই ধরনের মানুষের দেখা হলে তারা প্রেমে পড়ে যান। ইনডিপেনডেন্ট তুলে ধরেছে এসব অদ্ভুত ও বিদঘুটে বিষয়ের কথা।

২. ইউনিভার্সিটি অব সেন্ট আন্দ্রিউস-এর মনোবিজ্ঞানী ডেভিড পেরেট এবং তার সহকর্মীদের দল এক গবেষণায় জানান, একই বৈশিষ্ট্যের চোখ ও চুলের মানুষরা একে অপরের প্রেমে পড়তে পারেন। আরেকটি অদ্ভুত বিষয় উঠে আসে পরীক্ষায়। যে মেয়েদের মায়ের বয়স সাধারণত তিরিশের বেশি, তাদের প্রতি তেমন আগ্রহবোধ করে না ছেলেরা। এ ক্ষেত্রে মেয়ের চেহারার মাঝে তারা মায়ের বয়স্ক চেহারার ছায়া দেখেন।

৩. ইউভার্সিটি অব সাউদার্ন ক্যালিফোর্নিয়ার গবেষণায় বলা হয়, ছেলেদের ব্যবহৃত টি-শার্টের গন্ধ পছন্দ হলে তারা প্রেমে পড়ে যান। দেখা গেছে, যে পুরুধের দেহে অধিকমাত্রায় টেস্টোস্টেরন হরমোনের ক্ষরণ ঘটে তার গন্ধের প্রতি আকৃষ্ট হন নারীরা।

৪. প্রেম নিবেদনে অঙ্গভঙ্গি শব্দ প্রয়োগের চেয়ে শক্তিশালী হয়ে ওঠে। দুই হাত পকেটে পুরে বুক ভেতরমুখী করে রাখলে মনে হয়, আপনার আগ্রহ নেই। কিন্তু খোলা অবস্থায় দুই হাত ও সটান বুক দেখলে ভালো লাগে নারীদের।

৫. ইউনিভার্সিটি অব ম্যাসাচুসেটসের মনোবিজ্ঞানী জোয়ান কেলারম্যান এক গবেষণায় জানান, কেউ একে অপরের চোখে টানা ২ মিনিট চোখ রাখলে প্রেমে পড়ে যান। টানা দুই মিনিট চোখে চোখ রাখার পর প্রেমে পড়ার অনুভূতি না আসলেও পরবর্তীতে তারা একে অপরের প্রতি আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

৬. ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক মনোবিজ্ঞানী তার গবেষণায় জানান, আলাপকালে যিনি উষ্ণ পানীয় খাচ্ছেন, তার মনটাও উষ্ণতাপূর্ণ হয়ে থাকে। কাজেই এক সঙ্গে যদি এক কাপ কফি খাওয়া যায় তবে একে অপরের প্রেমে পড়বেন।

৭. ইউনিভার্সিটি অব মিশিগানের বিশেষজ্ঞরা জানান, যে পুরুষের একটি কুকুর রয়েছে তার প্রেমে পড়েন নারীরা। কারণ এমন পুরুষরা নারীর চোখে বেশ দায়িত্বশীল মনে করেন। তাদের ওপর নির্ভর করা যায় বলেও অনুভব করেন নারীরা।

৮. নারী-পুরুষদের দুজনই যদি দেখতে খুব বেশি আকর্ষণীয় হন, তবে একে অপরের প্রেমে পড়বেন। আবার দুজনই কম আকর্ষণীয় হলেও পরস্পরের ভাব জমে উঠতে পারে।

৯. যদি ছেলেটি গান গাইতে পারে বা কোনো বাদ্যযন্ত্র বাজাতে পারে, তবে মেয়েরা সহজেই আকৃষ্ট হয়।

১০. স্লোভাকিয়ার এক গবেষণায় বলা হয়, যদি লাল রংয়ের পোশাক পরেন, তবে যে কেউ আপনার প্রেমে পড়তে পারে। ভালোবাসার ক্ষেত্রে লাল সবচেয়ে আকর্ষণীয় রং।

১১. একটু অন্য ধাঁচের দাড়ি-গোঁফ যে সকল পুরুষের আছে, তাদের প্রেমে পড়তে দেখা গেছে নারীদের। এক পরীক্ষায় দেখা যায়, বড় ও ঘন দাড়ি-গোঁফের চেয়ে খোঁচা খোঁচা দাড়িতে বেশি আকৃষ্ট মেয়েরা।

2018-12-12T10:51:35+00:00December 12th, 2018|বিনোদন|
Advertisment ad adsense adlogger