একলা চলা……………..

হাসপাতালের সাদা চাদরে মোড়ানো বিছায় শুয়ে আছে অজয়,,,,,এক দৃষ্টিতে তার দিকে তাকিয়ে আছে জয়া,,,অজয় কে খুটিয়ে খু টিয়ে দেখছে সে,কয়েক ঘন্টার ব্যাবধানে কেমন পাল্টেগেছে অজয়,,,কালচে ছোপ পরেছে চামড়ায়,গাল টা বিচ্ছিরি রকমের তোবড়ানো,,কপালে বলিরেখা দেখা যাচ্ছে,,কানের লতিটা একেবারে ভেঙ্গে গেছে,,কি তেজি পুরুষ আর কি অবস্হায় পড়ে আছে,,,ডাক্তার অজয়ের বুকের উপর কত ধরনের মেশিন বসায়ে দিয়েছে,,,,অজয়কে বাচানোর সব রকম চেষ্টায় চালানো হচ্ছে,,,,,আজয়ের পায়ের দিকে দাড়িয়ে আছে জয়া, সাথে তাদের একমাত্র সন্তান অনন,,,হাঠাৎ করে অজয় তাকালো,জয়াকে দেখতে পেয়ে হাতের ইশারায় ডাকলো কাছে।।ছেলের হাত ধরে এগিয়ে গেলো জয়া,,জয়ার হাতটা ধরে ওর চোখের দিকে তাকিয়ে রইলো কিছুক্ষন,তারপর ছেলের হাতটা নিয়ে জয়ার হাতের মধ্যে দিলো,আর চোখের ভাষায় বুঝিয়ে দিয়ে গেলো সব,,,আজ থেকে আমাদের ভালোবাসার ফসল এই ছেলেকে তোমার কাছে দিয়ে গেলাম,,,ওকে তুমি আগলিয়ে রেখো,,,ওর মধ্যেই আমাকে খুজে পাবে তুমি,,,তার কিছুক্ষন পরেই ধপ করে আলো নিভে গেলো,,,চারিদিকে সব অন্ধকার,, এক নিস্তব্ধতা নেমে এলো জয়া আর অননের জীবনে,,,সেই থেকে মা ছেলের একলা পথ চলা………..

Advertisment ad adsense adlogger