নিয়মিত এক কাপ চা- পান করেই দেখুন

শরীরের ঝিমভাব কাটাতে অনেকেই চা পান করে থাকেন। কারও পছন্দ চিনি ছাড়া লাল চা, কারও আবার বেশি দুধ ও চিনি সহযোগে কড়া চা। চায়ের কতই না রূপভেদ। কিন্তু ধর্ম-বর্ণ ও লিঙ্গ নির্বিশেষে মানুষ একটা ব্যাপারে একমত হবেনই, চা ছাড়া দিন যে কাটে না। সম্প্রতি চায়ের গুণাগুণ সম্পর্কে একটি নতুন সমীক্ষা হয়েছে। বের হয়েছে তার ফলাফলও। যেখানে বলা হচ্ছে, যারা নিয়মিত চা পান করেন, তাদের বুদ্ধি, একাগ্রতা ও সৃজনশীলতা যারা চা পান করেন না, তাদের চেয়ে বেশি। গবেষকরা বলছেন, চায়ের মধ্যে ক্যাফিন ও থিয়ানিন রয়েছে। এই উপাদানগুলো মানুষকে সদা সতর্ক থাকতে সাহায্য করে। একাগ্রতা বাড়ায়। মস্তিষ্কে ‘ক্রিয়েটিভ জুসে’র প্রবাহ বাড়িয়ে দেয় এক কাপ চা। এই তত্ত্ব হাতেকলমে প্রমাণ করতে ২৩ বছর বয়সী ৫০ জন যুবককে দুটি দলে ভাগ করা হয়। তাদের মধ্যে একদলকে শুধু পানি দেয়া হয়, ওপর দলটিকে দেয়া হয় পানি ছাড়াও নিয়মিত লিকার চা পান করতে। দুটি দলকেই নানা কাজের ভার দেয়া হয়। তাদের কিছু অঙ্ক কষতে দেয়া হয়, ইতিহাসের কয়েকটি প্রশ্ন জানতে চাওয়া হয়। এবার ফল যা বলছে, তাতে দেখা যায়, যারা নিয়মিত চা পান করেছেন, তাদের স্কোর ৬.৫৪। আর যারা চা পান করেননি, তাদের গড় স্কোর ৬.০৩। তাহলে বুঝতেই পারছেন, বারবার চা চাওয়ার অভ্যাসে গিন্নি বিরক্ত হলেও এই প্রবণতা কিন্তু মোটেও ক্ষতিকারক নয়। তবে ঘনঘন পান করার অভ্যাস থাকলে দুধ-চিনি ছাড়া লিকার চা বা গ্রিন টি পান করুন। এতে সুস্থও থাকবেন বেশিদিন, আর বাড়বে বুদ্ধি-একাগ্রতাও।

 

2018-01-23T07:16:54+00:00January 23rd, 2018|স্বাস্থ্য|
Advertisment ad adsense adlogger