অন্ধ মানুষের সংখ্যা তিন গুণ বাড়ছে

প্রতি বছর সারা বিশ্বে বাড়ছে অন্ধ মানুষের সংখ্যা। এভাবে বাড়তে থাকলে আগামী ২০৫০ সালের মধ্যে বিশ্বে অন্ধ মানুষের সংখ্যা তিন গুণ বাড়বে। সম্প্রতি এক গবেষণায় এ বিষয়টি জানা গেছে।

বিশ্বের বেশ কয়েকজন স্বনামধন্য গবেষক এ গবেষণাটি করেছেন। এতে উঠে এসেছে বিশ্বের অন্ধ জনসংখ্যা বৃদ্ধির তথ্য। গবেষণাটির ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে ল্যানসেট গ্লোবাল হেলথে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, বর্তমানে বিশ্বে তিন কোটি ৬০ লাখ মানুষ অন্ধ। তবে বর্তমানে যে অবস্থা দেখা যাচ্ছে তাতে প্রতীয়মান হয় যে, বিশ্বের এ অন্ধ জনসংখ্যা ক্রমে বাড়বে। এ পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ২০৫০ সালের মধ্যে অন্ধদের এ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াবে সাড়ে ১১ কোটি।

কিন্তু কেন বাড়বে অন্ধ জনসংখ্যা? গবেষকরা বলছেন, এ সংখ্যা বেড়ে যাওয়ার পেছনে বয়স্ক লোকের সংখ্যা বেড়ে যাওয়া একটি বড় ভূমিকা রাখবে। অন্ধত্ব ও দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়ার হার সবচেয়ে বেশি দেখা যাবে দক্ষিণ এশিয়া ও সাব-সাহারান আফ্রিকায়।

গবেষকরা এ গবেষণার জন্য ১৮৮টি দেশের তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করেছেন। এতে তারা দেখেছেন ২০ কোটিরও বেশি লোক মাঝারি থেকে তীব্র দৃষ্টিশক্তি সমস্যায় ভূগছে। ২০৫০ সালের মধ্যে এই সংখ্যা ৫৫ কোটিরও বেশি হতে পারে।

প্রধান গবেষক রুপার্ট আরএ বোর্ন। তিনি অ্যাংলিয়া রাসকিন ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক। তিনি বলেন, ‘এমনকি সামান্য দৃষ্টিশক্তি কমে যাওয়াও মানুষের জীবনে যথেষ্ট প্রভাব ফেলে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, এতে তাদের স্বাধীনতা কমে যায়…. প্রায়ই তারা গাড়ি চালাতে পারে না।’

এছাড়া অন্ধ মানুষেরা শিক্ষা ও অর্থনৈতিক সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয় বলেও জানান তিনি।

গবেষণায় বলা হয়, সারা বিশ্বের বয়স্ক জনসংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি তাদের নানা ধরনের ক্রনিক স্বাস্থ্যগত সমস্যাও বাড়ছে। আর এ সমস্যার অন্যতম দৃষ্টিশক্তি হারানো। তবে গরিব দেশগুলোতে এ সমস্যা বেশি হারে বাড়ছে। এ কারণে উন্নয়নশীল দেশগুলোকে এক্ষেত্রে গুরুত্ব দিতে হবে। চোখের চিকিৎসায় বেশি করে ডাক্তার ও নার্স নিয়োগ করতে হবে এবং তাদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করতে হবে যেন তারা যথাযথভাবে চোখের চিকিৎসা করতে পারে।

2018-12-10T12:00:32+00:00December 10th, 2018|স্বাস্থ্য|
Advertisment ad adsense adlogger