যে গ্রামে শিশুকে ধূমপানে উৎসাহিত করা হয়..

পর্তুগালের একটি প্রত্যন্ত গ্রাম ভেল দে সুলগেইরো।আপনি জেনে অবাক হবেন,গ্রামটির অভিভাবকরা শিশুদের ধূমপানে উৎসাহিত করেন।শুধু তাই নয়, সিগারেটও কিনে দেন।মনের আনন্দে সেই সিগারেটও খায় শিশুরা।

ভেল দে সুলগেইরো গ্রামে ‘কিং-ফিষ্ট’ নামে একটি উৎসব হয়, যা নতুন বর্ষবরণকে কেন্দ্র্র করে দু’দিন ধরে চলে।উৎসবের দিন গ্রামবাসীরা আগুন জ্বালিয়ে তার চারপাশে নাচতে থাকেন, একজনকে রাজা সাজানো হয়। রাজা সবাইকে মদসহ খাবার পরিবেশন করেন। এই অনুষ্ঠানেই শিশুদের সিগারেট খেতে উৎসাহিত করা হয়। গ্রামটির এটাই প্রচলিত রীতি। শিশুদের বয়স পাঁচ বছর হলেই সিগারেট খেতে উৎসাহিত করা হয়।

যদিও পর্তুগালে ১৮ বছরের কম বয়সীদের ধূমপান করা নিষিদ্ধ, কিন্তু ভেল দে সুলগেইরো গ্রামের অভিভাবকরা এ আইন মানেন না। আর প্রশাসনও এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না।

ওই গ্রামের এক অভিভাবক বলেন, ‌’আমার মেয়েকে সিগারেট খেতে দিচ্ছি, কিন্তু এতে খারাপ কিছু দেখি না। শিশুরা তো আসলে ধূমপান করতে পারে না, ধোঁয়া টানে আর ছেড়ে দেয়। উৎসবের দিনগুলোতে তারা ধূমপান করে, পরে তারা আর সিগারেট চাইবে না।

গ্রামটির এক প্রবীণ ব্যক্তি জানান, এই নিয়ম শুধু উৎসবের দু’দিন। এই উৎসবে গ্রামবাসীরা সেসব কাজই করেন, যেগুলো সারাবছর করতে পারেন না। শিশুদের ধূমপান সেরকমই একটি বিষয়।

2018-12-18T10:54:12+00:00December 18th, 2018|স্বাস্থ্য|
Advertisment ad adsense adlogger