জয়নাব ধর্ষণ ও হত্যা পাকিস্তানের পার্লামেন্টে তোলপাড়

পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের কাসুরে সাত বছরের শিশু জয়নাবকে ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে সাধারণ মানুষের মতো সরব হলেন দেশটির পার্লামেন্ট জাতীয় পরিষদের সদস্যরা। এই ঘটনায় দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে শিশুদের মধ্যে ধর্ষণ সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য স্কুল ও মাদ্রাসার পাঠ্যপুস্তকে যৌন হয়রানির বিষয় অন্তর্ভুক্তির ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন তাঁরা। নিখোঁজ হওয়ার এক দিন পর গত মঙ্গলবার একটি আবর্জনার স্তূপ থেকে উদ্ধার করা হয় ছোট্ট জয়নাবের লাশ। শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার পর ‘জাস্টিস ফর জয়নাব’ দাবিতে গত বুধবার থেকে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে সেখানকার মানুষ। অপরাধীর খোঁজ দিলে ১ কোটি টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ। গতকাল পুলিশ সন্দেহভাজন ধর্ষকের সিসিটিভির ফুটেজ প্রকাশ করেছে। পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষের কার্যক্রম কাল সোমবার বিকেল চারটা পর্যন্ত মুলতবি রাখা হয়েছিল। কিন্তু কাসুরের এই মর্মান্তিক ঘটনার পর তা নিয়ে আলোচনার জন্য অধিবেশন চালু রাখা হয়। কাসুরের এই ঘটনার ভবিষ্যতে যাতে পুনরাবৃত্তি না ঘটে, সে জন্য শিশু নিপীড়ন প্রতিরোধে শক্তিশালী পদক্ষেপ গ্রহণের একটি প্রস্তাব পাসের জন্য অধিবেশনের বিশেষ সভায় আলোচনা করবেন সংসদ সদস্যরা। গতকাল সংসদ অধিবেশনে পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী মরিয়ম আওরঙ্গজেব যৌন হয়রানি সম্পর্কে শিশুদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টিতে পাঠ্যপুস্তকে এ-সংক্রান্ত বিষয় অন্তর্ভুক্তির ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

2018-01-14T09:38:44+00:00January 14th, 2018|আন্তর্জাতিক|
Advertisment ad adsense adlogger