সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়া কেলেঙ্কারিতে পৃথিবীর ৮৩টি দেশ থেকে ফরাসী দুগ্ধ কোম্পানি ল্যাকটালিসের এক কোটি বিশ লাখ গুঁড়া দুধের বাক্স ফেরত পাঠানো হয়েছে। খামারটি প্রধান নির্বাহী (সিইও) দূষণের মাত্রা ঝুঁকিপূর্ণ বলে ফরাসী গণমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেছেন। কারখানায় সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়া পাওয়ায় গত বছরের ডিসেম্বর থেকে ল্যাকটালিসের পণ্য ফেরত আসতে শুরু করে। -খবর বিবিসি অনলাইনের কোম্পানিটির দুধ খাওয়ানোর পর শিশুরা অসুস্থ হতে শুরু করলে তাদের বাবা-মা আইনের আশ্রয় নেন। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় দুগ্ধ কোম্পানিগুলোর মধ্যে ল্যাকটালিস অন্যতম। বছরে তারা গড়ে প্রায় একুশ হাজার কোটি ডলারের পণ্য বিক্রি করে। ফেরত আসা বিভিন্ন ধরনের পণ্য কোম্পানিটি তিন পর্বে গ্রহণ করেছে। সালমোনেলা ব্যাকটেরিয়ার কারণে মারাত্মক ডায়রিয়া, পেটব্যথা, বমি ও তীব্র পানিশূন্যতা দেখা দিতে পারে। বিশেষ করে কমবয়সী বাচ্চারা এসব রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে বলে জানা গেছে। ফরাসী কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ধরনের ৩৫ ঘটনা পত্রিকায় এসেছে। স্পেনেও একটি ঘটনা ঘটেছে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। গ্রিসে এমন একটি ঘটনার তদন্ত চলছে। ল্যাকটালিসের প্রধান নির্বাহী ইমানুয়ের বাসনিয়ার ডু ডিম্যানচি জার্নালে দেয়া সাক্ষাৎকারে রোগের প্রাদুর্ভাব গোপন রাখার কথা অস্বীকার করেছেন। বাসনিয়ার বলেন, অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করা হবে, তাতে আমরা পুরোপুরি সহযোগিতা করব। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে ক্ষতিপূরণ দেয়ারও আশ্বাস দেন তিনি।
উত্তর-পশ্চিম ফ্রান্সে ক্রেওন অঞ্চলে সেলিয়া কারখানা সংস্কারের সময় এই দূষণের ঘটনা ঘটেছে বলে কোম্পানির তরফে বলা হয়েছে। ফ্রান্সের কৃষিমন্ত্রী বলেন, ওই কারখানার সকল পণ্য উৎপাদন অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ থাকবে। বর্তমানে এ নিয়ে তদন্ত চলছে। তদন্তের পর ল্যাকটালিসকে শাস্তির মুখোমুখি হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে ফ্রান্স সরকার। বিভিন্ন বিপণি বিতানে দূষিত পণ্য বিক্রি করতে দেখা গেলে খুচরা বিক্রেতাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপেরও হুমকি দেয়া হয়েছে।