যুক্তরাষ্ট্রে তরুণ অভিবাসী নিয়ে সমঝোতা

যুক্তরাষ্ট্রে তরুণ অভিবাসী নিয়ে সমঝোতা ডেমোক্র্যাটরা সাময়িক বরাদ্দ বিলের পক্ষে ভোট দেয়ার পর যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকারের কার্যক্রম তিনদিন আংশিক বন্ধ থাকার পর ফের শুরু হয়েছে। রিপাবলিকানরা তরুণ অবৈধ অভিবাসীদের নিয়ে পরবর্তীতে আলোচনার প্রতিশ্রুতি দেয়ায় ডেমোক্র্যাট নেতৃত্ব বরাদ্দ বিলে সমর্থন দিতে রাজি হন। দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সোমবার সন্ধ্যায় বিলটিতে সই করেন। মঙ্গলবার সকালে সরকারী কর্মকা-ের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসে। -খবর এএফপি ও বিবিসি অনলাইনের ট্রাম্প বিরোধীদের সমালোচনা করে অচলাবস্থা নিরসন হওয়ায় নিজের বিজয় দাবি করেন। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, কংগ্রেসে ডেমোক্র্যাটদের বোধোদয় হওয়ার জন্য আমি তাদের প্রতি সন্তোষ প্রকাশ করছি। আমরা অভিবাসীদের নিয়ে তখনই দীর্ঘস্থায়ী চুক্তি করব, যখন তারা আমাদের দেশের জন্য ভাল কিছু বয়ে আনবে। সিনেটে বিলের পক্ষে ৮১ ও বিপক্ষে ১৮টি ভোট পড়ে। এর কয়েক ঘণ্টা পর প্রতিনিধি পরিষদে ২৬৬-১৫০ ভোটে বিলটি পাস হয়। পরিষদের স্পীকার পল রায়ান বলেন, সঙ্কটের ইতি ঘটতে যাচ্ছে, এটা আমাদের জন্য একটা বিশাল স্বস্তির বিষয়। গত বছরের অক্টোবর থেকে সরকারী খরচ চালাতে এটা চতুর্থ সাময়িক পদক্ষেপ। কারণ ক্যাপিটল হিল দীর্ঘমেয়াদী বরাদ্দে রাজি হয়নি। এবার আগের রাজস্ব বছরের বরাদ্দ অনুসারে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অর্থ বরাদ্দ দেয়া হবে। এর মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী বাজেট পাস হবে বলে আশা করা হচ্ছে। গত শনিবার থেকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো কয়েক হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী মঙ্গলবার আবার তাদের কর্মস্থলে ফিরে এসেছেন। জর্জিয়ার আটলান্টার রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের বিজ্ঞানী টম চ্যাপেল বলেন, এই অচলাবস্থা ভাঙ্গার দরকার ছিল। এটা মানুষকে ব্যাপক অসুবিধায় ফেলেছিল। সিনেটের সংখ্যালঘিষ্ঠ নেতা চাক শুমার বলেন, তার দল সরকার পুনরায় সচল করতে ভোট দিয়েছে। সিনেটের সংখ্যাগরিষ্ঠ রিপাবলিকান নেতা মিচ ম্যাককনেলের সঙ্গে সমঝোতা হয়েছে বলে জানান শুমার। ম্যাককনেল ৮ ফেব্রুয়ারির আগে অভিবাসন নিয়ে বিতর্কানুষ্ঠান করতে রাজি হয়েছেন। ম্যাককনেল বলেন, তার দল অভিবাসীদের নিয়ে ডেমোক্র্যাটদের সঙ্গে আলোচনা রাজি হয়েছে। ডেমোক্র্যাটরা প্রায় সাত লাখ তরুণ অভিবাসীদের বিতারণ থেকে রক্ষা করতে চায়। ড্রিমার নামে পরিচিত এসব অভিবাসীরা শৈশবে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছিলেন। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র সরকার তাদের বৈধতা না দিয়ে সাময়িক থাকার সুযোগ দেয়। ডেমোক্র্যাটরা যুক্তরাষ্ট্রের তরুণঅভিবাসীদের বিতাড়িত হওয়া থেকে রক্ষা করতে একটি আইন পাস করা নিয়ে কাজ করছে। তারা চায়, বাজেট নিয়ে সমঝোতার অংশ হিসেবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অভিবাসন নিয়ে আপোস করতে হবে। ওদিকে, রিপাবলিকানরা বলে আসছে, কেন্দ্রীয় সরকারের সেবাগুলো বন্ধ থাকায় কোন সমঝোতা সম্ভব নয়। কিন্তু তরুণ অভিবাসীদের জন্য সাবেক প্রেসিডেন্ট ওবামা আমলের সুরক্ষা অক্ষুণœ থাকার নিশ্চয়তা না পাওয়া পর্যন্ত ডেমোক্র্যাটরা বাজেট বিলে ভোট দিতে আপত্তি জানানোয় সমস্যার সুরাহা হচ্ছিল না। এখন দুই পক্ষ সাময়িকভাবে বরাদ্দ বিলটি অনুমোদন করতে রাজি হওয়ায় সরকার সচল হওয়ার পথ সুগম হয়েছে। ক্যালিফোর্নিয়ার সিনেটর হ্যারিস বলেন, ম্যাককনেলকে বিশ্বাস করা হবে চরম বোকামি। তিনি আসছে সপ্তাহে অভিবাসন বিল নিয়ে আলোচনা শুরু করবেন, তা বিশ্বাস হচ্ছে না। আরেক সিনেটর ডিয়ানে ফেনস্টেন বলেন, রিপাবলিকানদের সঙ্গে এই সমঝোতায় তিনি অসন্তুষ্ট। তারা ড্রিমারদের সহায়তা করবে, এই সমঝোতায় তার কোন নিশ্চয়তা নেই। ডেমোক্র্যাটিক কংগ্রেসম্যান লুইস গুটিরিজ তার নিজ দলের সমালোচনা করে বলেন, তারা গর্তে ঢুকে পড়েছে। তাদের দৃষ্টিশক্তি কমে গেছে। তারা যা করেছে, সে সম্পর্কে তাদের নিজেদের কোন ধারণা নেই। সোমবার সন্ধ্যা থেকে তারা গর্তমুখী হতে শুরু করেছে।

 

 

2018-01-24T07:01:25+00:00January 24th, 2018|আন্তর্জাতিক|
Advertisment ad adsense adlogger