পূর্ব জেরুজালেম হবে ফিলিস্তিনের রাজধানী

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ফিলিস্তিনী প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে নিশ্চিত করেছে পূর্ব জেরুজালেমকে ভবিষ্যৎ ফিলিস্তিনের রাজধানী হিসেবে পেতে তার আকাক্সক্ষার প্রতি জোটটির সমর্থন রয়েছে। সোমবার ব্রাসেলসে আব্বাসের সঙ্গে আলোচনার সময় ইইউর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফেডেরিকা মোগেরিনি একথা বলেন। তার এ মন্তব্যের মাধ্যমে জোটটি মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতির সিদ্ধান্তকে আরও একবার প্রত্যাখান করল। বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে ইইউ’র পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এক বৈঠকে আব্বাস পূর্ব জেরুজালেকে ফিলিস্তিনের রাজধানী করার ক্ষেত্রে তার দাবি পুনর্ব্যক্ত করেন। একইসঙ্গে তিনি ইইউভুক্ত দেশের সরকারগুলোকে শীঘ্রই ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দেয়ার আহ্বান জানান এবং বলেন এটা ইসরাইলের সঙ্গে শান্তি বন্দোবস্তের আলোচনায় কোন বাধা সৃষ্টি করবে না। এসময় আব্বাস ট্রাম্পের জেরুজালেম বিষয়ে পদক্ষেপ বা ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সোমবারের নগরীটি ভ্রমণের বিষয়ে কোন কথা বলেননি। ব্রাসেলসে ইইউ সদরদফতরে আব্বাসের এই উপস্থিতিকে ইউরোপীয় কর্মকর্তারা ট্রাম্পের সিদ্ধান্তকে পুনরায় বিবেচনা করার একটা সুযোগ হিসেবে দেখছেন। মোগেরিনি শান্তি প্রক্রিয়ায় যুক্ত ব্যক্তিদের আরও দায়িত্ব নিয়ে প্রজ্ঞার সঙ্গে কথা বলা ও কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি এসময় দ্বিরাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান এবং জেরুজালেমকে ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে বিভক্ত রাজধানী হিসেবে দেখতে চাওয়ার ইইউ’র দৃঢ় অঙ্গীকারের বিষয়টি আব্বাসকে স্মরণ করিয়ে দেন।

 

2018-01-24T07:05:37+00:00January 24th, 2018|আন্তর্জাতিক|