কুষ্টিয়ায় পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে ডাকাত সর্দার নিহত

২৭শে এপ্রিল,২০১৬ ॥ মাহাতাব উদ্দিন লালন,কুষ্টিয়া প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া নতুন মেডিকেল কলেজের সামনে গভীর রাতে মহাসড়কে গাছ কেটে অবরোধ সৃষ্টি করে ডাকাতি করার সময় গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে আমিরুল ইসলাম(৪২) নামের একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশের দাবী, নিহত আমিরুল আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দ্দার। নিহত আমিরুল ডাকাত দল ও চরমপন্থী সংগঠনের আঞ্চলিক নেতা।
নিহত আমিরুল কুষ্টিয়া সদর উপজেলার উজানগ্রাম ইউনিয়নের সোনাইডাঙ্গা গ্রামের জবেদ আলী মিস্ত্রীর ছেলে। কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জয়নুল আবেদীন জানান, মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া দুইটার দিকে কুষ্টিয়া-রাজবাড়ী সড়কে নির্মানাধীন কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ এলাকায় মন্ডল ফিলিং স্টেশনের কাছে একদল ডাকাত সড়কের উপর গাছ ফেলে ডাকাতীর প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এমন সংবাদে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল সেখানে উপস্থিত হলে ডাকাত দলের সদস্যরা পুলিশকে ল¶্য করে গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে ডাকাতরা পালিয়ে গেলে সড়কের নিচে হাউজিং মাঠে গুলিবিদ্ধ আমিরুলকে পাওয়া যায়। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৪টি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র, ধারালো অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে।
তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। নিহত আমিরুল ডাকাত দল ও চরমপন্থী সংগঠন গণবাহিনীর আঞ্চলিক নেতা ছিল। তার বিরুদ্ধে হত্যা, গুম, অপহরণসহ ৭টি মামলা রয়েছে।
এদিকে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ৪টি দেশীয় আগ্নেয়াস্ত্র, ধারালো অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে। বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের চারজন সদস্য আহত হয়েছে।

Advertisment ad adsense adlogger