বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার পক্ষ থেকে বিশিষ্ট আইনজীবীদের ফুলেল শুভেচ্ছা

স্টাফ রিপোর্টার
বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার পক্ষ থেকে কুষ্টিয়ার বিশিষ্ট আইনজীবিদের ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। গতকাল দুপুরে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি তরিকুল ইসলাম তরুন ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান(লাল)’র নেতৃত্বে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ কুষ্টিয়া জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাড. সিরাজ-উল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক এ্যাড. নূরুল ইসলাম দুলাল, কুষ্টিয়ার পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি)এ্যাড.অনুপ কুমার নন্দি, সরকারী কৌশুলী (জিপি) এ্যাড.আ.স.ম আখতারুজ্জামান মাসুম, জেলা আওয়ামীলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক সিনিয়র আইনজীবী হারুন অর রশিদ, স্পেশাল পিপি এ্যাড. সামস তানিম মুক্তি ও এপিপি দোলন কে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সহ-সভাপতি মোস্তফা কামাল জুয়েল, আব্দুল কুদ্দুস, আব্দুর রব জনি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এস এম শামীম রানা, মাজেদুল হক টনি, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সোহেল রানা, মিনহাজুল আবেদিন দীপ, আইন সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, সাংস্কৃতিক সম্পাদক টপি বিশ্বাস, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মৌসুমী আক্তার, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সাদিয়া দিশা, তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক তানিয়া রহমানসহ সংগঠনের অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ, আইনের শিক্ষার্থীদের মাঝে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শ প্রচারে সর্ববৃহৎ ছাত্র সংগঠন। আর এই সংগঠনটি ১৯৯৬ সালের ২৯ শে মার্চ , বর্তমান প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় বঙ্গবন্ধু আইনজীবী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সিনিয়র এ্যাডভোকেট লায়েকুজ্জামান মোল্লার তত্ত্বাবধায়নে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ শিক্ষা, শান্তি, শৃংখলা, ন্যায়নীতি শ্লোগানকে ধারণ করে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যেকোন দুঃসময়ে এই সংগঠনের নেতা কর্মীরা নিঃস্বার্থ ভাবে দলের জন্য কাজ করে গেছে, বিশেষ করে বিএনপি-জামাতের দুঃশাসনের সময়, ওয়ান-এলিভেন এ নেত্রীর মুক্তি আন্দোলন সহ সকল আন্দোলন সংগ্রামে আইন-অঙ্গন থেকে শুরু করে সকল ক্ষেত্রে সংগঠনটির অগ্রণী ভুমিকা ছিল, এমনকি এসব আন্দোলনে ভূমিকার কারণে এই সংগঠনের একাধিক নেতা কর্মী কারাবরণও করেছে। ১৯৯৬ সালের ২৯ শে মার্চ পথচলা শুরু করে আজকে প্রায় সকল পাবলিক, প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়, ল’কলেজ থেকে শুরু করে প্রায় প্রতিটি জেলায় সংগঠনটির অবাধ পদচারনা এবং সারাদেশে সংগঠনটির প্রায় ১২০ টি শাখা কমিটি রয়েছে ।

Advertisment ad adsense adlogger