উপাচার্য সত্ত্বার চাইতে লেখক সত্ত্বা আমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ: ড. রাশিদ আসকারী

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-উর-রশিদ আসকারী (ড. রাশিদ আসকারী) বলেছেন, “বাংলাদেশের যে কোনো শিল্পকর্মের প্রধান প্রতিপাদ্য হওয়া উচিত ’৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ এবং বাঙালির গৌরবোজ্জ্বল স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিকথা।”

নিজের লেখা ইংরেজি গল্প সংকলন ‘নাইনটিন সেভেনটি ওয়ান এন্ড আদার স্টোরিজ’ এর ফরাসি অনুবাদের মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে ড. রাশিদ আসকারী একথা বলেন।

শনিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুর ১টায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন ভবনের সম্মেলন কক্ষে অনুবাদ গ্রন্থটির মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠান হয়। মোড়ক উন্মোচন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান এবং কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ সেলিম তোহা।

অনুষ্ঠানে ড. রাশিদ আসকারী আরো বলেন, “গ্রন্থটি ফরাসি ভাষায় অনূদিত হওয়ায় এবং মহান বিজয়ের মাসের প্রথম দিনে মোড়ক উন্মোচন করতে পারায় আমি গভীরভাবে আনন্দিত।”

অনুষ্ঠানে তিনি আরো বলেন, “উপাচার্য সত্ত্বার চাইতে লেখক সত্ত্বা আমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।”

উল্লেখ্য, উপাচার্য ড. হারুণ-উর-রশিদ আসকারী শিক্ষকতার পাশাপাশি রাশিদ আসকারী নামেই লেখালেখি করেন।

অনুষ্ঠানে বইটির মোড়ক উন্মোচন করে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, “এই অনুবাদের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সীমানা পেরিয়ে অন্য দেশের মানুষদের নাড়া দেবে, স্পন্দন যোগাবে।”

অধ্যাপক ড. মোঃ সেলিম তোহা তার বক্তব্যে গ্রন্থটি বাংলা ভাষায় অনুবাদের জন্য উপস্থিত সাংবাদিকদের মাধ্যমে বাংলা একাডেমির নিকট আবেদন জানান।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রক্টর অধ্যাপক ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান, ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলাম এবং ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাব ও সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্দ আলোচনায় অংশ নেন।

তথ্য, প্রকাশনা ও জনসংযোগ অফিসের উপ পরিচালক মোঃ আতাউল হক এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বইটি ফরাসি ভাষায় অনুবাদের কাজ করেছেন বিশিষ্ট ফরাসি অনুবাদক এনা গ্যাব্রিয়েল কৌশী। বইটি প্রকাশ করেছে ভারতের নয়াদিল্লীর প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান রুব্রিক পাবলিশিং।

রুব্রিক পাবলিশিং-এর সত্ত্বাধিকারী বিশিষ্ট লেখক, কবি ও অনুবাদক ড. বীণা বিশ্বাস বলেন, “বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের উপর রচিত এই মূল্যবান গ্রন্থটি আমাদের দারুণভাবে আন্দোলিত করেছে। এর অনুবাদের কাজটিকে আমি সম্পূর্ণ মূলানুগ রাখার চেষ্টা করেছি। ভবিষ্যতে নেপালি ভাষাসহ ভারতের আরো একাধিক ভাষায় এটি অনুবাদের পরিকল্পনা রয়েছে।”

‘নাইনটিন সেভেনটি ওয়ান এন্ড আদার স্টোরিজ’ গ্রন্থটি ২০১১ সালের ডিসেম্বরে প্রকাশ করে প্রকাশনা সংস্থা পাঠক সমাবেশ। গ্রন্থটিতে লেখকের মোট বারোটি গল্প স্থান পেয়েছে।

এর আগে গ্রন্থটি হিন্দি ভাষায় অনুবাদ করেন ভারতের শিমলা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. উষা বন্দে, যার মোড়ক উন্মোচন হয় এ বছরের ২৫ জুন।

2018-12-01T19:25:16+00:00December 1st, 2018|কুষ্টিয়া|
Advertisment ad adsense adlogger