কুষ্টিয়া নিউজ ডেক্স ॥ কুয়েতের রাষ্ট্রদূত আদেল মোহাম্মেদ এ এইচ হায়াত আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাতকালে বলেন, আমরা বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রয়াসে সহায়তা দিতে সব সময় প্রস্তুত রয়েছি।
বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফকালে একথা বলেন।
কুয়েতের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চৌকস নেতৃত্বের প্রশংসা করে বলেন, তাঁর নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে তিনি (রাষ্ট্রদূত) অভিভূত।
রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশকে তার ‘সেকেন্ড হোম’ হিসেবে অভিহিত করে উপসাগরীয় যুদ্ধের সংকটকালে কুয়েতকে সমর্থন দেয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, এই সমর্থনের জন্য তার দেশ এ দেশের কাছে ঋণী।
কুয়েতে বিপুলসংখ্যক বাংলাদেশীর উপস্থিতির কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন, তারা খুবই কঠোর পরিশ্রমি।
প্রত্যুত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ কুয়েতে আরো দক্ষ জনশক্তি পাঠাতে চায়। বাংলাদেশীদের হৃদয়ে কুয়েতের বিশেষ স্থান রয়েছে এ মন্তব্য করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রচেষ্টায় কুয়েতের অনেক অবদান রয়েছে।
স্বাধীনতার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কুয়েত সফরের কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, ওই সময় থেকে দু’দেশের মধ্যকার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক জোরদার থেকে জোরদার হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী কুয়েত থেকে অপরিশোধিত তেল কেনায় কুয়েতের সহযোগিতার কথাও স্মরণ করেন।
শেখ হাসিনা রাষ্ট্রদূতের মাধ্যমে কুয়েতের আমির ও প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।