দৌলতপুর প্রতিনিধি ঃ কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে লাশ উত্তোল ৭০ পিস ইয়াবাসহ ব্যবসায়ী গ্রেফতার, ভ্রাম্যমান আদালতে মাদক ব্যবসায়ীর ৩ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
জানাগেছে গতকাল রবিবার সকালে উপজেলার প্রাগপুর ইউনিয়নের বিলগাথুয়া গ্রামের কাবুলের লাশ উত্তোলন করা হয়। কাবুলের স্ত্রী ঝুনুয়ারা বেগম কুষ্টিয়া আদালতে অভিযোগ করে ১৯.০৩.১৪ তারিখে দুপুরে তার স্বামীর আপন ভাই বিল গাথুয়া গ্রামের জাহান মন্ডলের ছেলে বিদু মন্ডল (৩৮), কাবের মন্ডল (৫০) ও রিপন (৪৫) তাদের আলাদা বাড়ীতে দাওয়াত করে খাওয়ায়, পরে যোহরের নামাজের পর খাবারের বিষ ক্রিয়ায় কাবুল মন্ডল (৪৮) মারা যায়। এ ব্যাপারে বাদীনি থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা নিতে অস্বীকৃতি জানালে কুষ্টিয়া আদালতে খাবারে বিষ প্রয়োগে অস্বাভাবিক মৃত্যু বলে মামলা করে, আদালত মামলা গ্রহণের জন্য দৌলতপুর থানাকে নির্দেশ দেয়, থানা মামলা রেকড করে যার নং ২,তারিখ ০৪.০৭.১৫। আদালতের নির্দেশে রবিবার সকালে লাশের ময়না তদন্তের জন্য প্রায় ২২ মাস পর লাশ উত্তোলন করা হয় এবং মর্গে প্রেরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী ম্যজিট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌফিকুর রহমান, দৌলতপুর থানার ওসি(তদন্ত) আসাদুজ্জামান চাকলাদার, চেয়ারম্যান অরিফুর রহমান, গোরস্থান সভাপতি এমজি মোস্তফাসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।
গত শনিবার রাতে এএসআই আসাদ,উজ্জল,জাহিদ ও সাবেদ আলি সঙ্গিয় ফোর্স নিয়ে এলাকার তারাগুনিয়া ফারাকপুর এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে আমিরুল (৩২) কে ৭০ পিচ ইয়াবা ও নাম্বার বিহীন টিভিএস মটর সাইকেল সহ আটক করে এবং মামলা দায়ের করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।
মাদক ব্যবসায়ী তারাগুনিয় গ্রামের মহাবুল হকের ছেলে রিংকু (২৭) ৩ মাসের কারাদণ্ডদেন নির্বাহী ম্যজিট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) নাহিদা আক্তার। জানাগেছে দৌলতপুর থানার এএসআই আসাদ, ছাবেদ আলি ও উজ্জল মাদকস্পট থেকে তকে হাতেনাতে ধরে ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে তার কারাদণ্ড হয়।
: