বিভিন্ন স্থানে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে শৌচালয় নির্মাণ করা হলেও, যেখানে সেখানে প্রস্রাব করা থেকে অনেককেই আটকানো সম্ভব হচ্ছে না। আর এ চিত্র নতুন নয়। বিজ্ঞাপনের সচেতনতা প্রসার থেকে শুরু করে বহুবার সতর্ক করা হলেও কোনওভাবেই নিয়ম-শৃঙ্খলা মানছে না ভারতের মানুষ। তবে এবার এই বিষয়টিকে আটকাতে উত্তর দিল্লি মেয়র প্রীতি আগরওয়াল এক অভিনব পদক্ষেপ নেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। এবার থেকে সেখানে খোলা স্থানে প্রস্রাব করলেই বাজবে বাঁশি। এই বাঁশিই বন্ধ করবে এই অভ্যাস। উত্তর দিল্লির মেয়রের মতে, স্বচ্ছ ভারত মিশনের জন্য উত্তর এমসিডি এলাকায় পর্যাপ্ত সংখ্যায় শৌচালয় নির্মাণ করানো হয়েছে। লক্ষ্যে পৌঁছতে ৩১৪টি শৌচালয় ইতিমধ্যেই নির্মিত হয়েছে, যেখানে পুরুষদের জন্য ৩৫০৮ টি এবং নারীদের জন্য ৩২৩২ টি শৌচালয় নির্মাণ করা হয়েছে। তিনি জণগণের কাছে আবেদন করেন, শৌচালয় ব্যবহার করার জন্য। পাশাপাশি কেউ খোলা স্থানে প্রস্রাব বা শৌচকর্ম করলে, তাকে প্রতিহত করতে ‘রোকো রোকো…সিটি বাজাও’ অভিযানও শুরু হবে। এর জন্য বিভিন্ন স্থানে এক একটি দল মোতায়েন করা হবে যারা বাঁশি বাজিয়ে এই ধরনের কাজ আটকাবে। মেয়রের এই পদক্ষেপ বিভিন্ন মহলে ইতিমধ্যেই প্রশংসা অর্জন করছে।