Home2018-11-19T15:09:49+00:00
এইমাত্র পাওয়া
“বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণা ও শিক্ষকতা” প্লাজমা বিজ্ঞানী ড.এ এ মামুনদৌলতপুরে নির্বাচনী জনসভায় মাহবুব উল আলম হানিফ “উন্নয়নের ধারা অক্ষুন্ন রাখতে রাখতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে”ইবির সিন্ডিকেটে নতুন ৪ সদস্য, স্থান পেয়েছেন সদ্য বিদায়ী সফল প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমানইবির সিন্ডিকেটে নতুন ৪ সদস্য, স্থান পেয়েছেন সদ্য বিদায়ী সফল প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমানদিঘলকান্দিতে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে গণসংযোগ করেছেন কুষ্টিয়া-১ আসনের নৌকার প্রার্থী সরওয়ার জাহান বাদশার স্ত্রী মাহমুদা খানমদেড় শতাধিক দরিদ্র শীতার্ত পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘তারুণ্য’৩ শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে দৌলতপুরের রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইছাহক আলীর আওয়ামীলীগে যোগদানইবি ক্যাম্পাসে টুরিজম বিভাগের সভাপতি ড. মাহবুবুল আরফিন চলছে সমালোচনার ঝড়, বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর নানা তথ্য!রাতের বুকজ্বলা সমস্যার ঘরোয়া সমাধান৩৬০ ডিগ্রি ফটো ও ভিডিও দেখতে ফেসবুকের নতুন অ্যাপএকাদশ জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে গ্রাফিতি অঙ্কন কর্মসূচিতে জাবি ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এর অংশগ্রহণবঙ্গবন্ধু আইন পরিষদ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এর শাখার নতুন কমিটিনিউজ ফিডে পরিবর্তন আনল ফেসবুকযে অভ্যাসগুলো ত্যাগ করা উচিতযে গ্রামে শিশুকে ধূমপানে উৎসাহিত করা হয়..মাত্র এক মাসেই উচ্চতা বাড়ায় এই ১৫টি খাবারএবার আরও নির্ভুল অনুবাদ করবে গুগল ট্রান্সলেটপাঁচ বিষয়ে কখনো ই-মেইল করবেন নাএকাদশ জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে জাবি ছাত্রলীগের গ্রাফিতি অঙ্কননোবেলের অর্থে হাসপাতাল করবেন নাদিয়া

অন্যান্য

রাজনীতি

ইতিহাস ও ঐতিহ্য

বিশেষ প্রতিবেদন

কৃষি সমাচার

খেলাধুলা

৩ শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে দৌলতপুরের রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইছাহক আলীর আওয়ামীলীগে যোগদান

খালিদ হাসান রিংকু
কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ৯নং রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা ইছাহক আলী ৩ শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে যোগদান করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকালে কুষ্টিয়া-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আ.ক.ম সরোয়ার জাহান বাদশার বাসভবনে উপস্থিত হয়ে বিএনপির নেতাকর্মীর নিয়ে বিএনপি ছেড়ে ইছাহক আলীসহ প্রায় ৩ শতাধিক নেতাকর্মী আওয়ামীলীগে যোগদান করেন।

রিফাইতপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইছাহক আলী এই প্রতিবেদককে জানান, আমরা রাজনীতি করি সাধারণ মানুষের কল্যানে। সাধারণ মানুষ আমাদের দিকে চেয়ে থাকে ভাল কিছু প্রত্যাশার জন্য। আমি দীর্ঘদিন ধরে বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত থেকে দেখেছি সাধারণ মানুষের প্রত্যাশা পূরন করতে পারিনি। বর্তমান সরকারের আমলে বিগত ১০ বছর ধরে দৌলতপুর তথা কুষ্টিয়া জেলা ও সারা বাংলাদেশে যে পরিমান উন্নয়ন হয়েছে স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে এতো উন্নয়ন কোন সরকার করতে পারেনি। বর্তমান সরকার সাধারণ মানুষের জীবন মানের ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। এই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতেই মূলত বিএনপি থেকে আওয়ামীলীগে যোগদান বলে তিনি জানান। ইছাহক আলী জানান, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসাধ্যকে সাধন করে দেখিয়েছেন। এদশের সাধারণ মানুষের জীবন মানের উন্নয়ন, দেশের উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে আওয়ামীলীগ সরকারের কোন বিকল্প নেই বলেই অভিমত প্রকাশ করেন।

কুষ্টিয়া-১ আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আ.ক.ম সরোয়ার জাহান বাদশার হাত নৌকা তুলে দিয়ে আওয়ামীলীগে যোগদান করছেন ইছাহক আলীসহ বিএনপির প্রায় ৩ শতাধিক নেতাকর্মী

যোগদান অনুষ্ঠানে আওয়াীলীগ এর মনোনীত প্রার্থী আ.ক.ম সরোওয়ার জাহান বাদশা বিএনপির নেতাকর্মীদে উদ্দেশ্যে বলেন, দীর্ঘদিন যাবত আপনারা বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। আপনারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সু-যোগ্য কন্যা জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আওয়ামী লীগে যোগদানের জন্য দীর্ঘদিন যাবত আমাদের নেতাকর্মীর সাথে যোগাযোগ চালিয়ে আসছেন। আপনারা উন্নয়নের পক্ষে থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করনের লক্ষ্যে যে মহৎ সিধান্ত নিয়েছেন এতে আমরা আপনাদের স্বাগত জানায়। আপনারা আমাদের দলীয় নেতাকর্মীর সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা আবারও দেশ ক্ষমতায় আসবেন, এবং আমাদের প্রিয় এই দেশ শেখ হাসিনার হাত ধরেই ক্ষূধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ হয়ে গড়ে ইঠবে ইনশাল্লাহ।

বিএনপির নেতাকর্মীদের আওয়ামীলীগে যোগদান বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কৃষি ও সমবায় উপ-কমিটির সদস্য ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার সাকীল খান জানান, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের উন্নয়ন আজ সর্বশ্রেণী পেশার মানুষের দৃষ্টিতে সুস্পষ্ট। মানুষ এখন উন্নয়নের পক্ষে। বর্তমান সরকারের গত ১০ বছরে মানুষের জীবন মানের ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। এই উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে সর্বশ্রেণী পেশার মানুষ আজ নৌকার পক্ষে সমর্থন দিচ্ছে। তিনি বলেন, এই যোগদান আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। অনেক বিএনপি নেতাকর্মী এখন অঅওয়ামীলীগের উন্নয়নের পক্ষে সমর্থন দিয়ে তারা নিজেরাও সাধারণ মানুষের কাছে নৌকা প্রতীকে ভোট চেয়ে গনসংযোগ করছেন। আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিপুল ভোটে জয় লাভ করবে। যোগদান অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ৯নং রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাব, রিফাইতপুর ইউনিয়ন পরিষদের নং ৫ ওয়ার্ড এর সদস্যজাহাঙ্গীর আলম, ঝুমর আলী, মারু আহম্মেদ, কুমর আলী, গেদা মন্ডল, বিচ্ছেদ আলীসহ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ইবি ক্যাম্পাসে টুরিজম বিভাগের সভাপতি ড. মাহবুবুল আরফিন চলছে সমালোচনার ঝড়, বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর নানা তথ্য!

স্টাফ রিপোর্টার
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের টুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মাহবুবুল আরফিন বিরুদ্ধে গত ৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্টিত ৬২তম সিন্ডিকেট তথ্য গোপনের অভিযোগে গৃহীত ব্যবস্থা বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশের পর হতে ইবি ক্যাম্পাসে আড্ডার প্রধান বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে ড. আরফিন। কেউ কেউ বলছে শিক্ষকতার পেশায় এসে এত বড় অনৈতিক কাজ করা কোননভাবেই ঠিক হয়নি। আবার কেউ বলছে প্রতি প্রশাসনে অবৈধ সুবিধা নিতে নিতে অভ্যাসে পরিনত হয়েছে কিন্তু বর্তমান প্রশাসন দূর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহন করায় সুবিধা করতে পাচ্ছেন না বলেই তিনি বড় বড় ব্যক্তিবর্গের নাম ভাঙ্গিয়ে অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ে সুবিধা নিচ্ছেন। আবার সামনে উঠে আসছে সেই যৌন হয়রানীর অডিও। আজও বিচার পাননি নির্যাতিত ছাত্রী। তবে সাধারনের দাবী উঠেছে এই দূর্নীতিবাজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেয়া হলে কালিমা লেপন শুধু ইবি কেন সমগ্র শিক্ষক সমাজের উপর বর্তাবে। এ প্রসঙ্গে প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো: কামাল উদ্দিন বলেন, নীতিরক্ষেত্রে আমি আপোষহীন। আরেফিন জেনেশুনে এরকম কাজ করলে শিক্ষক হিসেবে বলব কাজটি ভাল হয়নি। তাঁর উচিৎ ছিল প্রশাসনকে পূর্বেই জানানো। উনার ফ্যামিলির সব খবর আমি জানি, দেখি আমি জানতে চাইব কেন তিনি এটি করলেন? । ইবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো: মিজানুর রহমান বলেন, জেনেশুনে তিনি যে কাজটি করেছেন একজন সচেতন শিক্ষক হিসেবে আমি মনে করি তা আইনের পরিপন্থি। এটা করা ঠিক হয়নি।
জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, আমার ৩৫ বছর শিক্ষকতা জীবনে এরকম জঘন্য অনৈতিক শিক্ষক দ্বিতীয়টি দেখিনি। আমি মর্মাহত। উল্লেখ্য কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গত ৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ অনুষ্টিত ৬২তম সিন্ডিকেটে তথ্য গোপনের অভিযোগে অভিযুক্ত করে বিষয়টি গর্হিত অন্যায় ও নৈতিকতা বিরোধী অপরাধ চিহ্নিত করে বিশেষজ্ঞ সদস্য হতে ড. আরফিনকে অপসারণ ও আজীবনের জন্য দূনীতিবাজ শিক্ষকের কালো তালিকাভুক্ত করে ঐ বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল প্রকার কর্মকান্ডে বিরত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেন এবং যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য এই সিদ্ধান্ত ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে অফিসিয়ালী প্রেরণের নির্দেশ দেয়া হয়।
ইবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. রাশীদ আসকারী বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, ব্যবস্থা নেয়া হবে।

রাতের বুকজ্বলা সমস্যার ঘরোয়া সমাধান

নানা কারণে অনেকেই বুকজ্বালায় সমস্যায় ভোগেন। বিশেষ করে রাত্রিকালীন বুকজ্বলায় অনেকেরেই ঘুমের ব্যাঘাত হয়।

অনেকের অভ্যাস আছে রাতে ভুরিভোজ করা এবং রাতের খাবার খেয়েই শুয়ে পড়া। আর এটিই এ সমস্যার অন্যতম কারণ।

খেয়েই ঘুমিয়ে পড়ার এই অভ্যাস যে বিপর্যয় ডেকে আনে তা তারা ভাবেন না বা জানেন না। আর সেজন্যই রাতের বেলা বুকজ্বালার ঘনটা বেশি ঘটে।রাতের খাবার খাওয়ার পর শুয়ে পড়লে, শায়িত অবস্থায় খাদ্যনালী পাকস্থলীর এসিডের উদিগরণ ভালভাবে করতে পারে না।

ঘুমন্ত অবস্থায় দেহের লালা উত্পাদন বন্ধ থাকে। লালা আপনার ঘুমন্ত অবস্থায় এসিডের বিরুদ্ধে লড়াই করে। সুতরাং এসব প্রতিকারযোগ্য সমস্যা থেকে উত্তরণ এবং শরীরস্বাস্থ্য ভাল রাখতে চাইলে খাওয়ার অব্যবহিত পরে ঘুমিয়ে পড়ার আলস্য বা অভ্যাস পরিহার করুন।

এ সমস্যার সমাধানের জন্য আপনার শোয়ার কয়েক ঘন্টা আগে রাতের খাওয়া শেষ করুন। অল্প পরিমাণে  খান এবং মাথাটা যাতে বিছানা থেকে চার থেকে ছয় ইঞ্চি ওপরে থাকে তেমন বালিশ ব্যবহার করুন। এছাড়া বাম দিকে কাত হয়ে শুলেও উপকার পেতে পারেন।

৩৬০ ডিগ্রি ফটো ও ভিডিও দেখতে ফেসবুকের নতুন অ্যাপ

ফেসবুক নতুন একটি অ্যাপ ছেড়েছে। এই ডেডিকেটেড অ্যাপটি ৩৬০ ডিগ্রি ভিডিও দেখতে সহায়তা করবে। বর্তামান স্যামসাং গিয়ার ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হেডসেটেই ফেসবুক ৩৬০ দেখার সুযোগ রয়েছে। নতুন অ্যাপটি সহজে এই ভিডিও দেখার ব্যবস্থা করে দেবে।

এর মাধ্যমে নিউজ ফিড ব্রাইজ করা বা ফেসবুকের অন্যান্য কাজের সুবিধা দেবে না। এটা কেবল ভিডিও নিয়েই কাজ করবে। এটি আপনার কাছে পৌঁছানোর পর ২৫ মিলিয়ন ছবি এবং ১ মিলিয়ন ৩৬০ ভিডিও নিয়ে ব্যস্ত হতে পারছেন আপনি।

অ্যাপটি চার ভাগে ভাগ হয়ে যাবে। এগুলো হলো-

১. ‘এক্সপ্লোর’ আপনাকে গোটা সোশাল মিডিয়ার মধ্য থেকে মজার ও জনপ্রিয় ভিডিওগুলো খুঁজে বের করতে সহায়তা করবে।

২. যে বন্ধু ও পেজ ফলো করছেন সেখানকার ভিডিও চলে আসবে আপনার কাছে।

৩. যে কনটেন্টগুলো আসছে তা সেভ করে নিতে পারেন।

৪. নিজের ৩৬০ ভিডিও আপলোডের স্থানটি হলো নিজের টাইমলাইন।

ভিডিও লাইক, শেয়ার, রিঅ্যাক্ট ইত্যাদির ব্যবস্থা রয়েছে।

তবে এটা পরিষ্কার নয় যে, অ্যাপটি দিয়ে আপনি অন্যান্য ভিডিও দেখতে পারবেন কি না। নাকি এগুলো দেখার জন্য আবারো অন্য ব্যবস্থায় চলে যেতে হবে, তা ভবিষ্যতই বলে দেবে।

আসলে আপনি গিয়ারভিআর অকুলাস ভিডিও অ্যাপের মাধ্যমেই ৩৬০ ফটো ও ভিডিও দেখতে পারবেন। তবে ফেসবুক এটা দেখার কাজকে আরো সহজ ও গোছালো করে দেবে।

একাদশ জাতীয় নির্বাচন উপলক্ষে গ্রাফিতি অঙ্কন কর্মসূচিতে জাবি ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এর অংশগ্রহণ

আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত ভ্যানগার্ড বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা হাতে নিয়ে বিভিন্ন কর্মসূচি। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এর সংগ্রামী সভাপতি মো: জুয়েল রানা ও বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চল এর নেতৃত্বে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এর বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যে দেয়াল চিত্রাঙ্কন কর্মসূচী বিশ্ববিদ্যালয় এর সকল স্তরের শিক্ষার্থীদের অনুপ্রাণিত করেছে। দেয়াল চিত্রাঙ্কন এ অংশগ্রহণ করেছেন,জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় চারুকলা বিভাগের এক ঝাক মেধাবী শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে অনেকেই শাখা ছাত্রলীগ এর নেতা-কর্মী। দেওয়াল চিত্রাঙ্কন প্রসঙ্গে জাবি ছাত্রলীগ এর সভাপতি মো: জুয়েল রানা বলেন,,আসন্ন নির্বাচনে স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি, স্বাধীনতার একমাত্র প্রতীক নৌকা মার্কার প্রচারণার অংশ হিসেবে এই দেয়াল চিত্রাঙ্কন কর্মসূচি। তিনি আরও বলেন,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ এর প্রত্যেকটা স্তরের নেতা-কর্মী নিজ নিজ জায়গা থেকে নৌকার পক্ষে কাজ করে যাচ্ছেন। তরুণ ভোটারদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,তারুণ্যের প্রথম ভোট যেন স্বাধীনতার পক্ষেই হয়। শাখা ছাত্রলীগ এর সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু সুফিয়ান চঞ্চল বলেন,উন্নয়ন, গণতন্ত্র ও সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যেতে জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকাকে বিজয়ী করার জন্য নিরলসভাবে পরিশ্রম করে যাচ্ছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতা-কর্মী।তারই অংশ হিসেবে নৌকার প্রচারণার জন্য দেয়াল লিখন ও গ্রাফিতি অঙ্কনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রাত-দিন কাজ করে চলেছে।ইনশা্আল্লাহ আমারা মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করে উন্নয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে সর্বদা সোচ্চার থাকব।

বঙ্গবন্ধু আইন পরিষদ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এর শাখার নতুন কমিটি

তৌফিক আহমেদ, জাবি প্রতিনিধি
আইন ও বিচার বিভাগের ৪৪তম আবর্তনের শিক্ষার্থী শেখ জোবায়ের হোসেনকে সভাপতি ও রুমী আল মেহেদী পিয়াসকে সাধারণ সম্পাদক করে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শাখার নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৩ ডিসেম্বর) বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভাপতি মো. নাজিম ও সাধারণ সম্পাদক নোমান হোসাইন তালুকদার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এই নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন সহ-সভাপতি নুর মোহাম্মদ (আইন ও বিচার বিভাগ, ৪৪তম আবর্তন); যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহাবুদ্দিন তালুকদার (আইন ও বিচার বিভাগ, ৪৫ তম আবর্তন) এবং সাংগঠনিক সম্পাদক সানাউল হক ফরাজী (আইন ও বিচার বিভাগ, ৪৪তম আবর্তন)। বিজ্ঞপ্তিতে আগামী এক মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ জাবি শাখার সভাপতি শেখ জোবায়ের হোসেন বলেন,বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে সোনার মানুষ হওয়ার বিকল্প নেই।আমি বিশ্বাস করি আমরা সেই সোনার মানুষ হয়ে মানুষের পাশে দাড়াবো,আইনের ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠ্যায় নিজেকে বদ্ধপরিকর রাখবো।জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদ সেই কার্যক্রম অব্যহত রাখবে ইনশাল্লাহ। নব নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক রুমী আল মেহেদী পিয়াস বলেন, ‘ বঙ্গবন্ধুর আদর্শ লালনকারী এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী আইন ছাত্রদের নিয়ে এই সংগঠন গঠিত। কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের নির্দেশনা অনুযায়ী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিয়ে অতি শীঘ্রই পূর্ণাঙ্গ কমিটি কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে। সকলের সহযোগিতা পেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভবিষ্যত ভিশন বাস্তবায়নে বঙ্গবন্ধু আইন ছাত্র পরিষদের সকল নেতাকর্মী এবং সদস্যবৃন্দ সর্বদা বদ্ধপরিকর থাকবে।’

Advertisment ad adsense adlogger