আরশীনগর প্রতিবেদক ॥ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কুষ্টিয়া-৩ সদর আসনের এমপি, গণমানুষের নেতা, জননেতা মাহবুবউল আলম হানিফ আজ থেকে ৩ দিন কুষ্টিয়ায় নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে গণমানুষের সাথে একাকার হয়ে যাবেন। শহর থেকে গ্রামে, গ্রাম থেকে গ্রামান্তরের অতি সাধারণ জনগোষ্ঠীর প্রিয়নেতা তিনি। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্য দিবেন, বিকেল ৩ টায় কুষ্টিয়া সদর উপজেলার গোস্বামী-দূর্গাপুর শংকরদিয়া হাইস্কুল মাঠে এক বিশাল জনসভায় ভাষণ দিবেন। আগামীকাল শুক্রবার সকাল ১০টায় কুষ্টিয়া ফ্যাসিলিটিস ভবন উদ্বোধন, বেলা ১১টায় কালেক্টরেট চত্বরে কৃষি মেলার উদ্বোধন, বিকেল সাড়ে ৪টায় কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজে ল্যাব্রোস্কপি সার্জন সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করবেন। শনিবার সকাল ১০টায় সিরাজুল হক মুসলিম হাই স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন, বেলা ১১টায় হাজী আফসার উদ্দিন মহিলা মাদ্রাসায় চা চক্রে যোগদান, বেলা ১২টায় কল-কাকলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে যোগদান, বেলা ৩টায় আব্দালপুর ইউনিয়নের হাসানবাগ হাই স্কুল মাঠে বিশাল জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগদান করবেন।
মাহবুবউল আলম হানিফ একজন জননেতার প্রতিকৃতি। কুষ্টিয়ার পিছিয়ে পড়া উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়েছেন প্রাণপন প্রচেষ্টায়। স্বাধীনতার পূর্বে এবং পরে দীর্ঘকাল ধরে উন্নয়ন বঞ্চিত এক জনপদের নাম কুষ্টিয়া। আর কুষ্টিয়ার আশীর্বাদ হয়ে এই জেলার সকল উন্নয়ন, অগ্রগতির মূর্ত প্রতীক হিসেবে জনকল্যাণে নিজেকে নিবেদন করেছেন জননেতা মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কুষ্টিয়া-৩ সদর আসনের এমপি, গণমানুষের নেতা, জননেতার নাম মাহবুবউল আলম হানিফ। কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ, বাইপাস সড়ক, হরিপুর সেতু, সুইমিং পুল এর প্রতিষ্ঠাতার নাম জননেতার নাম মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি। সংসদে এবং সংসদের বাইরে সবখানে শুধু কুষ্টিয়ার উন্নয়ন। তাঁর দুই নয়ন শুধুই কুষ্টিয়ার উন্নয়ন। কুষ্টিয়ার উন্নয়ন ইতিহাসের নির্মাতা। ন্যায়, নীতিনিষ্ঠ বলিষ্ঠ নেতা, অনুপম চরিত্রের রাজনীতিক, প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের অগ্রপথিক।
কুষ্টিয়ার বিজয়ের প্রতীক জননেতা মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি’র সুযোগ্য নেতৃত্বে জাতীয় সংসদ থেকে স্থানীয় প্রতিটি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীদের বিজয়ের মধ্য দিয়ে তিনি এক নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছেন। জনগনের আস্থা অর্জন করে ব্যালটের মাধ্যমে গণরায় প্রতিষ্ঠিত করেছেন।
কুষ্টিয়া সদর উপজেলার প্রতিটি সড়ক অবকাঠামো, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ-মন্দির নির্মাণ, গ্রামে গ্রামে বিদ্যুতায়ন, পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার উন্নয়নে বলিষ্ঠ ভুমিকা পালন করে চলেছেন।
আজ প্রিয় নেতার আগমনে প্রতিটি অনুষ্ঠানে কুষ্টিয়ার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের মধ্যে উৎসবমূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। ফুল দিয়ে প্রিয়নেতাকে বরণ করার জন্য প্রস্তুত রয়েছে নেতার প্রিয়ভুমি কুষ্টিয়া।