ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত ড. জাকারিয়া সভাপতি ও ড. মিজান সাধারন সম্পাদক

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি ॥ বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনা ও স্বতস্ফুর্ত অংশগ্রহণ ও সমর্থনের মধ্য দিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়েছে। গতকাল বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত পরিষদের এক সাধারন সভায় শতাধিক সদস্যের উপস্থিতিতে এ কমিটি গঠিত হয়। কমিটিতে সভাপতি হিসাবে সর্বসন্মতিক্রমে মনোনিত হয়েছেন ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ও মার্কেটিং বিভাগের সভাপতি ড. জাকারিয়া রহমান ও সাধারন সম্পাদক হয়েছেন ইংরেজী বিভাগের অধ্যাপক ও শেখ হাসিনা হলের প্রভোস্ট ড. মিজানুর রহমান।
এই কমিটি গঠনকে ঘিরে সদস্যদের মধ্যে এক আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। কারন এটি ছিল পরিষদের সদস্যদের একটি দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। পরিষদের সাধারন সদস্যগণ বারবার নতুন কমিটি গঠনের দাবি জানিয়ে আসছিলেন। এমতবস্থায় কমিটি গঠনের মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদে নতুন মাত্রা যোগ হলো বলে মন্তব্য করেছেন পরিষদের সদস্যবৃন্দ।
উল্লেখ্য, গত ১ এপ্রিল ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের একটি এডহক কমিটির আত্মপ্রকাশ ঘটে। কিন্তু কোন প্রকার সাধারন সভা আহবান ব্যতিরেকে উক্ত কমিটি গঠিত হওয়ায় পরিষদের বৃহৎ সংখ্যক সাধারন সদস্যদের মতামত উপেক্ষিত হয়। একই সাথে এডহক কমিটিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রকৃত আর্দশ লালনকারী ও বিভিন্ন দীর্ঘ বৈরি আন্দোলন সংগ্রামে ত্যাগ স্বীকারকারী, বিএনপি-জামাতী রাজনীতির মামলা-হামলার শিকার সক্রিয় ও পরীক্ষিত সদস্যদের বৃহৎ অংশ বাদ পড়ে যায়। এতে পরিষদের সদস্যদের মধ্যে ক্ষোভ ও হতাশার সৃষ্টি হয় ; দেখা দেয় চরম অনৈক।
তারই প্রেক্ষিতে পরিষদের সাধারন সভা আহবান করা হয়। সভায় পরিবর্তিত বিভিন্ন বিষয়াদি, বিশ্ব¦বিদ্যালয়ের সার্বিক পরিবেশ-পরিস্থিতি, আগামী দিনের নানা কর্ম-পরিকল্পনা প্রভৃতি নিয়ে আলোচনা হয়।
সদস্যদের সক্রিয় মতামত ও দাবির প্রেক্ষিতে সর্বশেষে কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
পরিষদের সিনিয়র সদস্য প্রফেসর ড. কাজী আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক প্রফেসর ড. রুহুল কেএম সালেহ’র পরিচালানায় বক্তব্য রাখেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাবেক সাধারন সম্পাদক বিশিষ্ট লেখক, কলামিস্ট প্রফেসর ড. রাশিদ আসকারী, প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলার সভাপতি ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মাহবুবুল আরফিন, সাধারন সম্পাদক প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ও পরিবহন প্রশাসক ড. সাইদুর রহমান, এ্যাপলাইড কেমিষ্ট্রি বিভাগের অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. মাহবুবর রহমান, প্রফেসর তম লোকমান হাকিম, প্রফেসর ইয়ানিস আলী, প্রফেসর ড. আনোয়ারু হক স্বপন, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. শামসুল আলম, উপ-রেজিস্ট্রার হারুন-অর-রশীদ, মাহবুবল হক, উপ-পরিচালক সরওয়ার্দী হোসেন, সহকারী রেজিস্ট্রার মীর মোরশেদুর রহমান প্রমুখ।
সাধারন সভায় একই সাথে সর্বসন্মতিক্রমে অবিলম্বে পরিষদের সদস্যদের মধ্য থেকে সকল অনৈক্য, বিভেদ দুর করতে ও পরিষদের জন্য একটি পুর্ণাংগ কমিটি গঠনের লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়ার অঙ্গীকার পুর্ণব্যক্ত করা হয়। উক্ত কমিটি অচিরেই একটি সর্বজন গ্রহনযোগ্য নির্বাচন আয়োজন করবে মর্মে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।
পরে এক প্রেস কনফারেন্সের আয়োজন করা হয়। কনফারেন্সে পরিষদের নেতৃবৃন্দ বিভেদ ভুলে সকল সদস্যদের জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের ঘোষিত উন্নয়ন অন্বেষা বাস্তবায়নে এক কাতারে দাঁড়িয়ে কাজ করার উদাত্ত আহবান জানান।