একই পরিবারে জেলা পরিষদের প্রশাসক, পৌর মেয়র ও ইউপি চেয়ারম্যান

আশরাফুল ইসলাম রনি, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জের জেলার সর্ববৃহৎ ইউনিয়ন বেলকুচি উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের দুইবারের সাবেক চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস । জেল থেকেও একবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন । পরে আশির দশকের শেষে বেলকুচি উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন ।১৯৯৬ ও ২০০৮ সালে বেলকুচি থেকে দুই বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে মহাজোট সরকারের মৎস্য ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রী ছিলেন পুরো পাঁচ বছর ।

১৯৯৬ সালে লতিফ বিশ্বাস প্রথমবারের মত এমপি নির্বাচিত হলেতাঁর স্ত্রী আশানুর বিশ্বাস প্রথমবারের মত দৌলতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন । পরে ২০১১ সালে পুনরায় একই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন স্বামী মন্ত্রী থাকাকালীন । এবার প্রথমবারের মত দলীয় প্রতীকে পৌরসভা নির্বাচনে ইউপি চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে আওয়ামীলীগ থেকে বেলকুচি পৌরসভার প্রথম নারী মেয়র নির্বাচিত হন । স্বামী স্ত্রী দু দফা করে মোট চার দফা যে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং যে ইউনিয়ন লতিফ বিশ্বাসের রাজনৈতিক উত্থানের সূতিকাগার সেই ইউনিয়নের নেতৃত্বকে হাতছাড়া করতে চাননি বিশ্বাস পরিবার। তারই ধারবাহিকতায় এবার পরিবারের তৃতীয় সদস্য হিসেবে আওয়ামীলীগের মনোনয়নে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন লতিফ বিশ্বাস ও আশা বিশ্বাস দম্পতির ছেলে আশিকুর রহমান লাজুক বিশ্বাস। প্রায় ২৫ হাজার ভোটের ব্যাবধানে পতিপক্ষের শক্তিশালী প্রার্থীকে পরাজিত করে নির্বাচিত হয়েছেন । আর এই নির্বাচিত হওয়ার মধ্য দিয়ে একটি রেকর্ড সৃষ্টি করলেন এই পরিবার । বাবা সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের প্রশাসক। মা পৌরসভার মেয়র, ছেলে ইউপি চেয়ারম্যান।স্থানীয় সরকারের গুরুত্বপূর্ণ তিন পদ একই পরিবারে । উল্লেখ্য, সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল লতিফ বিশ্বাস সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদের বর্তমান প্রশাসক ।

2016-04-24T20:14:56+00:00April 24th, 2016|রাজনীতি|
Advertisment ad adsense adlogger