কুষ্টিয়া নিউজ ডেস্ক ॥ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার তিওরবিলা গ্রামে নজরুল ইসলাম (৩৬) নামের এক ব্যক্তিকে গুলি করে ও কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল সোমবার দুপুরে গ্রামটির দইলোখালি এলাকায় এই খুনের ঘটনা ঘটে।
এদিকে এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বিকেলে পাঁচটার দিকে সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের বাড়ি ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আগুন দেয়।
নিহত নজরুল তিওরবিলা গ্রামের গাজী পাড়ার বাসিন্দা খাসকররা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান লুৎফর রহমানের ছেলে। তিনি ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু বাজারে ক্লিনিক ব্যবসা করেন।
পুলিশ জানায়, সোমবার বেলা দুইটার নজরুল ইসলাম ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলা সদর থেকে মোটরসাইকেলে চড়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে বাড়ির কাছাকাছি পৌঁছালে ওত পেতে থাকা একদল দুর্বৃত্ত তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি করে। এ সময় নজরুল মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গেলে তাঁকে উপর্যুপরি কুপিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। খবর পেয়ে স্থানীয় তিওরবিলা পুলিশ ক্যাম্প ও আলমডাঙ্গা থানা-পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।
আলমডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ আতিয়ার রহমান হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তবে, কারা এবং কি কারণে নজরুলকে হত্যা করা হয়েছে তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেন নি।