ইবি প্রতিনিধি ॥ স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠাতা, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে, গতকাল কুষ্টিয়া সদর উপজেলা ইবি থানাধীন হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যোগে দোয়ারকাদাস মহিলা কলেজ মাঠে শেখ মুজিবের আত্মার মাগফেরত কামনায় দোয়া ও মিলাত মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। সে সময় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান টগর এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির আসন গ্রহন করেন কুষ্টিয়া শহর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক ও সদর-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য মাহাবুব-উল আলম হানিফ এর ছোট ভাই আতাউর রহমান আতা। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান মহি উদ্দিন মন্ডলের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ইমদাদুল হক, উজানগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, শহর আওয়ামীলীগ ৪নং ওয়ার্ড সাধারন সম্পাদক ডা: আফিল উদ্দিন। হরিনারায়নপুর ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক ফারুক হোসেন, যুগ্ন আহবায়ক শিপন ও মিন্টু, ইবি ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাতা সাবেক সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সরকার মঈন আক্কাস, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সোহেল আহম্মেদ ও সাধারন সম্পাদক সাদ আহাম্মেদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আমানুল ইসলাম আমান। উক্ত অনুষ্ঠানে কলেজ ছাত্রীদের মাঝে প্রধান অতিথি ১০ হাজার টাকা প্রদান করেন এবং সে সময় তার বক্তব্য বলেন ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্টে মাত্র পঞ্চান্ন বছর বয়সে তাকে স্বপরিবারে হত্যার শিকার হতে হয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে বাদ দেওয়া সম্ভব হয়নি। ইতিহাসের যিনি ¯্রষ্ঠা, বাঙালি জাতির জন্য একটি স্বাধীন রাষ্ট্র উপহার দিয়ে যিনি এক অসাধারন ইতিহাসের নির্মাতা হিসেবে বিশ্বব্যাপি খ্যাতি ও পরিচিতি অর্জন করেছেন, তার নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার মতো রাজনৈতিক মূড়তা কোনভাবেই জয়যুক্ত হতে পারে না,হয়নি, হবেও না। তিনি কৈশর থেকেই সাধারন মানুষের সাথে থেকেছেন, মানুষের জন্য লড়াই সংগ্রাম করেছেন। বাংলার মাটিতে জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাসবাদ, জামাত-শিবিরকে কখনও প্রশ্রয় দেওয়া হবে না। শেখ মুজিব লিডার থেকে হয়েছেন বঙ্গবন্ধু, হয়েছেন জাতির জনক।