নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ জঙ্গী, সন্ত্রাস দমন করতে তরুন সমাজকে ভুমিকা রাখতে হবে সেই সাথে অবিভাবকদের সচেতন হতে হবে।ু জন্মহোক যথা তথা কর্ম হোক ভালো। এই প্রত্যাশা করে সকল বাবা-মা তাদের সন্তানকে শিক্ষাঙ্গনে পাঠাবে। প্রত্যেক বাবা-মা চাই তাদের সন্তান যেন সু-শিক্ষাই শিক্ষিত হতে পারে। প্রত্যেক ছেলে-মেয়ের প্রতি খেয়াল রাখতে হবে তাদের সন্তান সময় মত বাড়ি ফিরছে কি না। পড়াশোনার প্রতি খেয়াল রাখতে হবে। যে সকল বাবা-মা তাদের সন্তানের খোজ রাখছে না তারাই আজ দেশের জঙ্গী, সন্ত্রাসদের সাথে কাজ করছে। তিনি আরও বলেন সন্তানের প্রতি সজাগ থাকলে সে সন্তান জঙ্গী সন্ত্রাস হতে পারে না। আজকের জঙ্গী, সন্ত্রাস তৈরী করছে বিএনপি, জামাত-শিবির। বিএনপি আই এস সৃষ্টি করতে চাই দেশকে ধ্বংস করতে চাই। যারা দেশকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিচ্ছে তাদের সাথে মেলা মেশা করা যাবে না। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধান মন্ত্রী দেশ রতœ শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে একটি উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে গড়তে চাই কিন্তু তার কাজের বাধা হয়ে দাড়াচ্ছে বিএনপি। বিএনপি ক্ষমতাই আসার লক্ষ্য দেশে জামাত-শিবিরের মত জঙ্গী-সন্ত্রাস তৈরী করছে। গতকাল কুষ্টিয়া সদর উপজেলা ইবিথানাধীন ঝাউদিয়া মাজপাড়া মহাবিদ্যালয়ে জঙ্গী, সন্ত্রাসবাদ বিরোধী আলোচনা সভা ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে ঝাউদিয়া মহাবিদ্যালয়ের সভাপতি ও কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক প্রকৌশলী ফারুক-উজ জামান প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন। মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ ও স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নুরজাহান শারমিন এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝাউদিয়া ইউনিয়ন নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান কেরামত আলী, উক্ত ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জহুরুল হক ঠান্টু ও পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ দিলিপ কুমার। আরও উপস্থিত ছিলেন কলেজ শিক্ষক গোলাম হোসেন খান, কাজী মনির আহম্মেদ, আমিরুল ইসলাম, বাবুল আক্তার, স্বঞ্চয় কুমার শাহ, মোশাররফ হোসেন, রফিকুল ইসলাম, সৈয়দ কামরুজ্জামান, ছানোয়ার হোসেন, আ: রাজ্জাক, সাইফুর রহমান মুনিব আলী সহ মহাবিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের অবিভাবক মন্ডলী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন বাংলা বিভাগের প্রভাষক জাহিদুল হক।