প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রীসভার সকল সদস্যের প্রতি শুভকামনা জানিয়েছেন ইঞ্জিনিয়ার সাকীল খান

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ নবগঠিত মন্ত্রীসভার ৪৭ সদস্যের প্রতি শুভকামনা জানিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডশন কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কৃষি ও সমবায় বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ও সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা কমিটি-২০১৮ এর সদস্য ইঞ্জিনিয়ার সাকীল খান । এক শুভেচ্ছা বার্তায় তিনি নকগঠিত মন্ত্রিসভার সকল সদস্যকে এই শুভেচ্ছা জানান। ইঞ্জিনিয়ার সাকীল খান বলেন, জাতির পতিার সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই ৪৭ জন সিপাহসালা ভিশন ২০৪১ বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। জাতির পিতা স্বপ্ন দেখেছিলেন একটি ক্ষূধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশের। তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাত ধরে ইতিমধ্যে বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে দূর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছেন। বাংলাদেশ আজ সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। ইঞ্জিনিয়ার সাকীল খান অভিমত ব্যক্ত করেন, নবগঠিত মন্ত্রিসভার সকল সদস্যই জননেত্রী শেখ হাসিনার পরিক্ষিত সৈনিক। বিগত ১০ বছরে দেশের সার্বিক যে উন্নয়ন হয়েছে নবগঠিত মন্ত্রীসভার সদস্যরা আগামী ৫ বছরে আরো অগ্রনী ভূমিকা পালন করবে। চৌকস মন্ত্রিসভার সকল সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানানোর পাশাপাশি ইঞ্জিনিয়ার সাকীল খান দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান, সামনের পথ চলায় দেশবিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত ষড়যন্ত্রকারীদের রুখে দিয়ে দেশ ও দেশের মানুষের ভাগ্যউন্নয়নে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করার আহ্বান জানান। এসময় তিনি বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন পরিবারের পক্ষ থেকে মন্ত্রীসভার সকল সদস্যের প্রতি শুভকামনা জানান।

উল্লেখ্য, এই মন্ত্রিসভায় ২৪ জন মন্ত্রী, ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী ও ৩ জন উপমন্ত্রী দায়িত্ব পালন করবেন। ২৪ জন মন্ত্রীর দায়িত্বপ্রাপ্তরা হচ্ছেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় আ ক ম মোজাম্মেল হক, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় ওবায়দুল কাদের, কৃষি মন্ত্রণালয় মো. আব্দুর রাজ্জাক, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আসাদুজ্জামান খান, তথ্য মন্ত্রণালয় মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় আনিসুল হক, অর্থ মন্ত্রণালয় আ হ ম মুস্তফা কামাল, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় মো. তাজুল ইসলাম, শিক্ষা মন্ত্রণালয় ডা. দীপু মনি, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ কে আব্দুল মোমেন, পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় এম এ মান্নান, শিল্প মন্ত্রণালয় নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় গোলাম দস্তগীর গাজী, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় জাহিদ মালেক, খাদ্য মন্ত্রণালয় সাধন চন্দ্র মজুমদার, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় টিপু মুনশি, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় নুরুজ্জামান আহমেদ, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় শ ম রেজাউল করিম, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় মো. শাহাব উদ্দিন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় বীর বাহাদুর উ শৈ সিং, ভূমি মন্ত্রণালয় সাইফুজ্জামান চৌধুরী, রেলপথ মন্ত্রলণালয় মো. নুরুল ইসলাম সুজন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এবং ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় মোস্তাফা জব্বার।

১৯ জন প্রতিমন্ত্রী হচ্ছেন, শিল্প মন্ত্রণালয় কামাল আহমেদ মজুমদার, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ইমরান আহমেদ, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় জাহিদ আহসান রাসেল, বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় নসরুল হামিদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় মো. আশরাফ আলী খান খসরু, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান, নৌ পরিবহন মন্ত্রণালয় খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় মো. জাকির হোসেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মো. শাহরিয়ার আলম, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ জুনাইদ আহমেদ পলক, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ফরহাদ হোসেন, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় স্বপন ভট্টাচার্য, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় জাহিদ ফারুক, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় মো. মুরাদ হাসান, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় শরীফ আহমেদ, সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় কে এম খালিদ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় ডা. মো. এনামুর রহমান, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় মো. মাহবুব আলী এবং ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ।

৩ জন উপমন্ত্রী হচ্ছেন, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় বেগম হাবিবুন নাহার, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় এ কে এম এনামুল হক শামীম এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয় মহিবুল হাসান চৌধুরী।

এর আগে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম রবিবার বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টায় রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ বঙ্গভবনে মন্ত্রিসভার সদস্যদের শপথ পাঠ করাবেন।

2019-01-06T23:24:39+00:00January 6th, 2019|রাজনীতি|
Advertisment ad adsense adlogger