নিউজ ফিডে’ বস্তুনিষ্ঠ সংবাদকে গুরুত্ব দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক। ভুয়া নিউজ ছড়িয়ে দেয়ার সমালোচনার প্রেক্ষাপটে নতুন এ ঘোষণা দিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার ফেসবুকের কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ জানিয়েছেন, ভুয়া ও সুড়সুড়ি দেয়া সংবাদের বিরুদ্ধে লড়াই চলবে। এখন থেকে ব্যবহারকারীদের মতামতের ভিত্তিতে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদমাধ্যম বাছাই করা হবে ‘শুধু সংবাদমাধ্যমগুলোর পোস্ট করা লিংকই নয়, ব্যক্তি ব্যবহারকারীরা যেসব সংবাদ প্রতিবেদন শেয়ার করবেন, তাও নজরে রাখবেন তারা’। জাকারবার্গ বলেন, ব্যবহারকারীদের পোস্টে সংবাদের জন্য জায়গা ৫ শতাংশ থেকে ৪ শতাংশে নামিয়ে আনা হবে। সেই সঙ্গে আঞ্চলিক সংবাদের উৎসগুলোকে গুরুত্ব দেয়া হবে’। জাকারবার্গের ঘোষণায় অনেকে সাধুবাদ জানালেও কেউ কেউ অবশ্য বস্তুনিষ্ঠ বাছাই প্রক্রিয়া নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন। এ ব্যাপারে জাকারবার্গের ভাষ্য, ফেসবুকের নির্বাহীদের কেউ নয়, বরং ব্যবহারকারীরাই বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনকারীদের নির্বাচন করবেন। ‘শুধু তাই নয়, বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ প্রকাশক বাছাইয়ের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের আকার কিংবা তার আদর্শিক অবস্থানকে গুরুত্ব দেবে না তারা’। জাকারবার্গ বলেছেন, ‘আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, ব্যবহারকারীরাই ঠিক করবেন, কোন সংবাদ প্রকাশ নির্ভরযোগ্য ও নিরপেক্ষ’। কেন এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে- এর কারণ ব্যাখ্যা করে জাকারবার্গ বলেন, ‘অনেক বেশি উসকানিমূলক, ভুয়া ও পক্ষপাতমূলক সংবাদের দৌরাত্ম্য চলছে বিশ্বজুড়েই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কারণে এখন আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে সংবাদ দ্রুত ছড়াচ্ছে। তাই এখনই যদি আমরা এই সমস্যার সমাধান করতে না পারি, তবে আমরা বড় গাড্ডায় পড়ে যাব’।