আর ক্যামেরা লাগবে না, এখন থেকে রোদচশমাতেই আপনি করতে পারবেন ভিডিও রেকর্ডিং, তুলতে পারবেন ছবি। তারপর স্মার্টফোনের সাহায্যে সেই ছবি বা ভিডিও সরাসরি পাঠাতে পারবেন স্ন্যাপচ্যাট, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম বা ইউটিউবে। বৈদ্যুতিক স্কেটবোর্ড প্রস্তুতকারী সংস্থা অ্যাক্টন আর কয়েক মাসের মধ্যেই বাজারে আনতে চলেছে এসিই আইওয়্যার নামে নতুন ধরনের এই রোদচশমা বা সানগ্লাস। এপ্রিল থেকেই এই রোদচশমার বুকিং করা যাবে। আগে থেকে অর্ডার করলে দাম পড়বে ৯৯ মার্কিন ডলার। প্রতিটি এসিই আইওয়্যারের দাম ১৯৯ মার্কিন ডলার করে। কোম্পানি দাবি, এই সানগ্লাসগুলি ৮ মেগাপিক্সেল ছবি এবং এইচডি ভিডিও রেকর্ড করতে পারবে। ক্যামেরা ঘুরবে ১২০ ডিগ্রি পর্যন্ত। যেহেতু চশমার ফ্রেম চতুষ্কৌণিক, সেহেতু ছবিগুলিও হবে একই আকারের। চশমার উপরে বাঁদিকের বোতাম টিপলেই শুরু হয়ে যাবে রেকর্ডিং। সানগ্লাস হলেও তা ধুলো এবং জল নিরোধক। ক্যামেরায় আছে ৪ জিবি মেমোরি। টানা ৪০ মিনিট ভিডিও রেকর্ডি করা যাবে। ক্যামেরার ব্যাটারি টানা চলবে দেড় ঘণ্টা। তারপরও স্ট্যান্ডবাই মোডে আরও ৮০ ঘণ্টা ক্যামেরা রোল হবে। আগে স্ন্যাপচ্যাটের ভিডিও রের্কডার স্পেকট্যাকেল্‌স এই ধরনেরই সানগ্লাস এসেছিল। কিন্তু গোলাকার ক্যামেরায় মাত্র ৩০ সেকেন্ডই ছবি বা ভিডিও তোলা যেত। তারপর তা শুধু স্ন্যাপচ্যাটেই পাঠানো যেত। ওই রোদচশমা বাজারে আনার পর প্রায় ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতি হয়েছিল স্পেকটাকেল্‌সের। কিন্তু অ্যাক্টনের নতুন রোদচশমা পুরনো সমস্যাগুলি কাটিয়ে ফেলেছে বলেই দাবি করছে কোম্পানি।